Projonmo Kantho logo
About Us | Contuct Us | Privacy Policy
ঢাকা, শুক্রবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৮ , সময়- ৭:২৩ অপরাহ্ন
Total Visitor: Projonmo Kantho Media Ltd.
শিরোনাম
খালেদা জিয়ার চিকিৎসা বিতর্ক কেন ? বিএনপি প্রতিনিধিদলের সঙ্গে সাক্ষাত শেষে যা বললেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী | প্রজন্মকণ্ঠ পছন্দের হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য আবেদন খালেদা জিয়ার | প্রজন্মকণ্ঠ খালেদা জিয়া কারাগারের বাইরে থাকার সময়ও জনগণ তার ডাকে সাড়া দেয়নি : ওবায়দুল কাদের বিএনপি-জামায়াত ক্লিনহার্ট অপারেশন চালিয়ে আ'লীগের অসংখ্য নেতাকর্মীকে নির্যাতনের শিকার করেছিল : প্রধানমন্ত্রী  ধর্মমন্ত্রী ও ভূমিমন্ত্রীর  কড়া সমালোচনা করলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে রিজভীর নেতৃত্বে মিছিল করেছে বিএনপি আ'লীগের প্রতিনিধিদলের উত্তরবঙ্গ সফর শুরু । প্রজন্মকণ্ঠ   বিজিবি-বিএসএফ সম্মেলন : সীমান্ত হত্যা শূন্যের কোটায় নামিয়ে আনার অঙ্গীকার | প্রজন্মকণ্ঠ  সেমিফাইনাল নিশ্চিত করতে মাঠে নামছে স্বাগতিক বাংলাদেশ, আগামীকাল | প্রজন্মকণ্ঠ

এবার জুটি বেঁধে খেললেন ফেদেরার–নাদাল


অনলাইন ডেস্ক

আপডেট সময়: ২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৭ ১২:৪৮ পিএম:
এবার জুটি বেঁধে খেললেন ফেদেরার–নাদাল

ক্রিকেটে ডন ব্র্যাডম্যান-শচীন টেন্ডুলকার, টেনিসে পিট সাম্প্রাস-আন্দ্রে আগাসি বা স্টেফি গ্রাফ-মনিকা সেলেস জুটি বেঁধে খেললে নিশ্চয়ই জাদুকরী মুহূর্তে বিমোহিত থাকতেন সবাই। তবে সর্বকালের অন্যতম সেরা দুই টেনিস তারকা রজার ফেদেরার-রাফায়েল নাদাল কল্পনার জগৎ নয়, বাস্তবেই খেলছেন জুটি বেঁধে। নেটের একই প্রান্তে এই দুই কিংবদন্তিকে একসঙ্গে খেলতে দেখাটা সৌভাগ্যের ব্যাপারই বটে। রাফায়েল নাদাল আর রজার ফেদেরারের লড়াই অনেকবারই দেখেছে এই দুনিয়া। গতকাল শনিবার চেক প্রাগে ওটু এরিনায় ১৭ হাজার দর্শকের সেই দুর্লভ অভিজ্ঞতাই হলো।

মঞ্চটা তৈরি করে দিয়েছে লেভার কাপ। চেক প্রজাতন্ত্রের প্রাগে গত পরশু শুরু হয়েছে এই টুর্নামেন্ট। তিন দিনের টুর্নামেন্টে বিয়ন বোর্গের নেতৃত্বে টিম ইউরোপে খেলছেন রজার ফেদেরার, রাফায়েল নাদাল, আলেকজান্দার জেরেভ, মারিন সিলিচ, ডমিনিক থিয়েম, টমাস বার্দিচ ও ফার্নান্দো ভার্দাস্কো। জন ম্যাকেনরোর নেতৃত্বে বিশ্ব একাদশের হয়ে অপর দলে খেলছেন স্যাম কুয়েরি, জন ইসনার, নিক কিরগুইস, জ্যাক সক, দেনিস সাপোভালভ, ফ্রান্সিস তিয়াফো ও থানাসি কোকিনাকিস। শুধু এক দলে থাকা নয়, গতকাল জুটি বেঁধে দ্বৈতে ফেদেরার-নাদালের খেলার কথা ছিল স্যাম কুয়েরি ও জ্যাক সকের বিপক্ষে।
ফেদেরার ১৯ আর নাদাল জিতেছেন ১৬টি গ্র্যান্ড স্লাম। ছেলেদের এককে এত বেশি গ্র্যান্ড স্লাম নেই আর কারো।

এই দুজন মহাকাব্যের মতো উপভোগ্য অনেক দ্বৈরথ উপহার দিয়েছেন টেনিস ভক্তদের। কোর্টে শত্রুতা থাকলেও বাইরে ঘনিষ্ঠ বন্ধুত্ব রয়েছে দুজনের। কেউ কাউকে আক্রমণ করে কথাও বলেননি । তাই রড লেভার টেনিসে আমন্ত্রণ পাওয়ার পর না করেননি ফেদেরার, নাদালের কেউ। চোট না থাকলে খেলতে পারতেন নোভাক জোকোভিচ আর অ্যান্ডি মারে। তাহলে স্বপ্নের জগতেই থাকতেন টেনিসপ্রেমীরা।
তিন দিনের টুর্নামেন্টে প্রথম দিন টিম ইউরোপ চার ম্যাচের জিতেছিল তিনটিতে। ফেদেরার, নাদাল কোর্টের বাইরে থেকে উৎসাহ দিচ্ছিলেন সতীর্থদের। একমাত্র হারটি ছিল দ্বৈতে। নাদাল ও টমাস বার্দিচ জুটি হেরে গিয়েছিলেন নিক কিরগুইস ও জ্যাক সকের বিপক্ষে। এ জন্যই গতকাল জুটি বেঁধে দ্বৈতে খেলার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন ফেদেরার ও নাদাল। এর আগে এককে জ্যাক সকের বিপক্ষে কোর্টে নেমেছিলেন তিনি। একই দিনে একক ও দ্বৈতের দুটি ম্যাচ খেলার অভিজ্ঞতাও খুব বেশি হয়নি এই কিংবদন্তির। তাই লেভার কাপকে শুধু প্রদর্শনী টুর্নামেন্ট বলতে রাজি নন নাদাল, ‘আমি ভোর ৬টায় ঘুম থেকে উঠে অনুশীলন করেছি। পুরো ক্যারিয়ারে কখনো কোনো প্রদর্শনী ম্যাচের আগে এত সকালে উঠিনি। তাহলেই বুঝুন টুর্নামেন্টটা জিততে কতটা মুখিয়ে আমরা সবাই। ’

জিততে চান ফেদেরারও। তিনি এ বছর জিতেছেন অস্ট্রেলিয়ান ওপেন ও উইম্বলডন। ৩৬ বছর বয়সী এই তারকা এখনো ভয়ের নাম যেকোনো প্রতিপক্ষের জন্য। তবে অস্ট্রেলিয়ান ওপেনের ফাইনালের শেষ সেটে ১-৩ গেমে পিছিয়ে পড়ার পর নাদালকে হারাতে না পারলে বছরটা অন্য রকম হতে পারত বলে মনে করেন ফেদেরার, ‘অস্ট্রেলিয়ায় শিরোপা জিতে পুরো পরিকল্পনা বদলে যায়। ’

নেহাতই প্রীতি টুর্নামেন্ট, জয়-পরাজয়ের কোনো প্রভাব পড়বে না এটিপি র‍্যাঙ্কিংয়ে। তবু দর্শকের কমতি ছিল না প্রাগে। শুক্রবার শুরু হওয়া তিন দিনব্যাপী এই টুর্নামেন্টে ৯-৭ ব্যবধানে এগিয়ে আছে টিম ইউরোপ। নিজেদের একক ম্যাচেও জিতেছেন টেনিসের দুই জীবন্ত কিংবদন্তি।

কোর্টে দুজনের সময়টা ভালোই কেটেছে। প্রথম সেটে ৬-৪ ব্যবধানে জেতার সময় হাসিঠাট্টা করতে দেখা গেছে দুজনকে। কিন্তু পরের সেট জিতে নাদাল-ফেদেরারের মুখ দুটি অন্ধকারে ঢেকে দেন কোয়েরি ও সক। হাজার হোক বিশ্বসেরা খেলোয়াড় তো! হার-জিত একটা বড় ব্যাপার তাঁদের কাছে। তবে নাদাল-ফেদেরার ম্যাচে ফেরেন দারুণভাবেই। ১০ পয়েন্টের সুপার টাইব্রেকারে ১০-৫ ব্যবধানে শেষ পর্যন্ত জয় তুলে নেন। ফেদেরার ১৯ আর নাদাল জিতেছেন ১৬টি গ্র্যান্ড স্লাম। সর্বমোট ৩৫টি গ্র্যান্ডস্ল্যামের মালিক এই দুই তারকা।

প্রতিযোগিতামূলক কোনো টুর্নামেন্টে জুটি বাধার পরিকল্পনা না থাকলেও প্রাগের স্মৃতিটা অসাধারণই নাদালের কাছে, ‘এটা আমাদের জন্য স্মরণীয় একটা মুহূর্ত। আমাদের ক্যারিয়ারের উত্থান-পতন ও প্রতিদ্বন্দ্বিতার এতগুলো বছর পর একসঙ্গে খেলতে পারাটা দারুণ ব্যাপার।’

ফেদেরারও সুর মিলিয়েছেন নাদালের সুরে, ‘এটি আমার জন্যও মনে রাখার মতো ব্যাপার। কিন্তু এই টুর্নামেন্ট শেষেই আমরা আবার প্রতিদ্বন্দ্বী।’

এই টুর্নামেন্টে ইউরোপীয় দলের অধিনায়ক টেনিসের আরেক কিংবদন্তি বিয়ন বর্গ। অন্যদিকে, টিম ওয়ার্ল্ডের অধিনায়ক জন ম্যাকেনরো। টুর্নামেন্ট জিততে আর ৪ পয়েন্ট দরকার ইউরোপের। আজ শেষ হচ্ছে এই টুর্নামেন্ট। 


আপনার মন্তব্য লিখুন...

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ন বেআইনি
Top