Projonmo Kantho logo
About Us | Contuct Us | Privacy Policy
ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৩ নভেম্বর ২০১৮ , সময়- ৪:০৮ পূর্বাহ্ন
Total Visitor: Projonmo Kantho Media Ltd.
শিরোনাম
রাখাইনে এখনো রোহিঙ্গাদের জন্য নিরাপদ পরিবেশ তৈরি হয়নি : রিচার্ড অলব্রাইট নির্বাচনী আচরণবিধি মানছেন না সম্ভাব্য প্রার্থীরা বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বাধীন সরকারই 'নির্বাচনকালীন সরকার'   মঙ্গলবার পর্যন্ত মনোনয়নপত্র জমা নিবে আওয়ামী লীগ  আন্তর্জাতিক পুরস্কারে মনোনীত শ্রম ও কর্মসংস্থান প্রতিমন্ত্রী প্রথম দিনে ১৩২৬টি মনোনয়ন ফরম বিক্রি করেছে বিএনপি  পাঁচ বিভাগের ৭টি আসনে একক প্রার্থী পাচ্ছে আওয়ামী লীগ সিইসিকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন বদরুদ্দোজা চৌধুরী ২৩ নয়, এখন ৩০  ৩০০ সংসদীয় আসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট নিয়োগের নির্দেশনা দিয়েছেন ইসি 

সলঙ্গায় শিশু ধর্ষণের অভিযোগ বাবাকে পিটিয়ে আহত


সুজন সরকার, সিরাজগঞ্জ 

আপডেট সময়: ৩০ ডিসেম্বর ২০১৭ ৯:২২ এএম:
সলঙ্গায় শিশু ধর্ষণের অভিযোগ বাবাকে পিটিয়ে আহত

সিরাজগঞ্জে সলঙ্গায় লামিয়া খাতুন (৫) নামে এক শিশুকে হাত মুখ বেঁধে ধর্ষনের অভিযোগ উঠেছে। তাকে সিরাজগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালের গাইনী ও প্রসূতি বিভাগে ১নং ওয়ার্ডে ১নং বেডে ভর্তি করা হয়েছে। এই ঘটনার প্রতিবাদ করায় শিশু লামিয়ার বাবাকে পিটিয়ে আহত করা হয়েছে। তাকেও হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এই হামলার ঘটনায় পুলিশ হাফিজুল ইসলাম নামে এক যুবককে আটক করেছে। সে সলঙ্গা থানার রামারচর গ্রামের মোতালেব হোসেনের ছেলে। 

সিরাজগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে লামিয়া খাতুনের মা লিপি বেগম অভিযোগ করে বলেন, গত শনিবার দুপুরে বাড়ির পাশ্ববর্তী মুন্নাফ আলীর ছেলে শাহদাত ও শাহ আলম তার মেয়ে লামিয়াকে গান শোনানোর কথা বলে ডেকে নিয়ে স্থানীয় গোজা ব্রীজ এলাকায় নিয়ে যায়। 

সেখানে নেশাগ্রস্ত দুই ছেলের কাছে আমার মেয়ে দিয়ে আসে। এখানে একটি ঘরে আমার মেয়ের উপর তারা নির্যাতন চালায়। এক পর্যায়ে সে জ্ঞান হারিয়ে ফেললে ঐ দুই নেশাগ্রস্ত যুবক তার হাতের রশি খুলে দিলে সে রাড়িতে চলে আসে।

রাতে ঘুমের মধ্যে সে ভয় পেয়ে চিৎকার করে। আমি তাকে জিজ্ঞাসা করলে সে আমাকে ঘটনার বিস্তারিত জানায়। পরে সকালে তাকে সিরাজগঞ্জ হাসপাতালে ভর্তি করে দেয়। লামিয়া খাতুনের বাবা আব্দুল হান্নান বলেন, আমি ইমপ্রেস নেটওয়ার্কের স্পেশাল অফিসার হিসেবে টাঙ্গাইলে কর্মরত আছি। আমার স্ত্রী লিপি মেয়ে নিয়ে গ্রামের বাড়িতে থাকে। মেয়ের ধর্ষনের খবর শুনে বাড়ি চলে আসি। বাড়িতে এসে জানতে পাই লামিয়াকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এসময় ঘটনার সাথে জড়িতদের বাড়ি গিয়ে প্রতিবাদ জানাই। পরে বাড়ি থেকে হাসপাতালের উদ্দেশ্যে বের হয়ে হাটিকুমরুল-বনপাড়া সড়কে আসলে আমার উপর হামলা করা হয়। তারা আমাকে পিটিয়ে আহত করে। পরে পুলিশের সহায়তায় আমি সিরাজগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে এসে ভর্তি হয়ে চিকিৎসা নেয়।

সলঙ্গা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ওহেদুজ্জামান জানান, যাদের বিরুদ্ধে ধর্ষনের অভিযোগ তারা একজন ৬ষ্ঠ শ্রেণী আরেকজন ৮ম শ্রেণীতে লেখাপড়া করে। তারা উভয়ে নিকট আত্নীয়। জমি সংক্রান্ত বিষয় নিয়ে নিজেদের মধ্যে বিরোধ রয়েছে। ধর্ষনের ঘটনায় এ পর্যন্ত কেউ মামলা করতে আসেনি। তবে আব্দুল হান্নানের উপর হামলার ঘটনার অভিযোগে একজনকে আটক করা হয়েছে।
 
সিরাজগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালের জরুরী বিভাগের কর্মরত চিকিৎসক শামীমুল ইসলাম বলেন, লামিয়ার মা তার মেয়েকে ধর্ষন করার অভিযোগ করেছেন। আমরা তাকে হাসপাতালে ভর্তি করে দিয়েছে। তার শারীরিক পরীক্ষা করা হয়েছে। পরীক্ষার রিপোর্ট হাতে পেলেই বিস্তারিত জানা যাবে।


আপনার মন্তব্য লিখুন...

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ন বেআইনি
Top