Projonmo Kantho logo
About Us | Contuct Us | Privacy Policy
ঢাকা, সোমবার, ১৯ নভেম্বর ২০১৮ , সময়- ১২:০৮ পূর্বাহ্ন
Total Visitor: Projonmo Kantho Media Ltd.
শিরোনাম
নাজমুল হুদাকে ৪৫ দিনের মধ্যে আদালতে আত্মসমর্পণের নির্দেশ  নির্বাচনকালীন সম্ভাব্য নাশকতা মোকাবিলায় সর্বাত্মক প্রস্তুতি নিচ্ছে সরকার  একজন শিশুকে পিইসি পরীক্ষার জন্য যেভাবে পরিশ্রম করতে হয়, সত্যিই অমানবিক : সমাজকল্যাণমন্ত্রী নির্বাচনকে সামনে রেখে আদর্শগত নয়, কৌশলগত জোট করছে আওয়ামী লীগ : সাধারণ সম্পাদক থার্টিফার্স্ট উদযাপন নিষিদ্ধ : স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় শান্তিপূর্ণ নির্বাচন অনুষ্ঠানের স্বার্থে পেশাদারিত্ব বজায় রাখবে সেনাবাহিনী  মহাজোটের সঙ্গে ঐক্যবদ্ধ হয়ে নির্বাচনে যাওয়ার শিগগিরই আনুষ্ঠানিক ঘোষণা আসছে  প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষা শুরু আজ  ভোট পর্যবেক্ষণের জন্য আবেদন শেষ তারিখ ২১ নভেম্বর  আ'লীগ যত রকম ১০ নম্বরি করার করুক, ভোট দেবো, ভোটে থাকব : ড. কামাল হোসেন

প্রশ্নফাঁস হয় পরীক্ষার দিন সকালে: শিক্ষামন্ত্রী


অনলাইন ডেস্ক

আপডেট সময়: ৩১ ডিসেম্বর ২০১৭ ৮:৩৫ এএম:
প্রশ্নফাঁস হয় পরীক্ষার দিন সকালে: শিক্ষামন্ত্রী

বিজি প্রেস থেকে প্রশ্নপত্র ফাঁসরোধে ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। এখন কোনো প্রশ্নপত্রই পরীক্ষার দুই মাস আগে ফাঁস হয় না। ওই দিন সকালে ফাঁস হয়। বিজি প্রেসে ব্যাপক পরিবর্তন আনা হয়েছে। সেখানে প্রশ্নফাঁসের সুযোগ নেই। প্রশ্নপত্র ফাঁসরোধে বিভিন্ন ধরনের ব্যবস্থা নেওয়া প্রসঙ্গে শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ এই মন্তব্য করেছেন।

গতকাল শনিবার দুপুরে সচিবালয়ে জেএসসি পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশ উপলক্ষে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ এ কথা বলেন। প্রশ্নপত্র জেলা ও থানায় পৌঁছানো নিরাপদ করা হয়েছে উল্লেখ করেন শিক্ষামন্ত্রী। তিনি বলেন, ‘সকালে যখন শিক্ষকের কাছে প্রশ্ন দেওয়া হয় তখন সমস্যা হয়। অনেক লোক শিক্ষকতায় ঢুকে গেছেন, যারা এটাকে অপব্যবহার করেন।’

অনেক আগে থেকেই প্রশ্নপত্র ফাঁস হতো বলে উল্লেখ করেছেন শিক্ষামন্ত্রী। তিনি বলেছেন, ১৯৬১ সাল থেকেই প্রশ্নপত্র ফাঁস হতে দেখে আসছেন। কিন্তু তখন তা সীমাবদ্ধ ছিল।

সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ বলেন, ‘এটা নিয়ে আপনারা বহু লিখছেন, আরও লিখবেন, বলবেন, আমরাও বলব। এটা আমি বহুবার বলেছি। এক কথা বারবার বলা। মনে হচ্ছে যেন, আধুনিক একটা পদ্ধতি চালু হয়েছে, জীবনে আর প্রশ্ন ফাঁস হয়নি। আমি আপনাদের কাছে একদিন বলেছি, আমি একষট্টি সালে মেট্রিক পরীক্ষা দিছি। অনুমান করে দেখেন, তখন থেকেই প্রশ্নপত্র ফাঁস দেখে আসতেছি। তখন সীমাবদ্ধ ছিল। সেই সময়ও ফাঁস হতো, বিক্রি হতো। এখন নানা সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম ও অন্যান্য মাধ্যমে দ্রুত প্রসার ও প্রচার হয়ে যায়। যদি প্রশ্নপত্র ফাঁস নাও হয়, শুধু ফেসবুকে লিখে দিলেই হবে প্রশ্নফাঁস হয়েছে, আর কিছু লাগবে না, ওইটা ধরেই প্রচার হয়ে যাবে।’

সংবাদ সম্মেলনে মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের সচিব মো. সোহরাব হোসাইনও প্রশ্নপত্র ফাঁসরোধে বিভিন্ন পদক্ষেপ নেওয়ার কথা উল্লেখ করেন।


আপনার মন্তব্য লিখুন...

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ন বেআইনি
Top