Projonmo Kantho logo
About Us | Contuct Us | Privacy Policy
ঢাকা, বুধবার, ১৭ অক্টোবর ২০১৮ , সময়- ৪:৩১ পূর্বাহ্ন
Total Visitor: Projonmo Kantho Media Ltd.
শিরোনাম
বৈশ্বিক ক্ষুধা সূচকে গত বছরের তুলনায় আরও দুই ধাপ এগিয়েছে বাংলাদেশ রাষ্ট্রদ্রোহ মামলার পর এবার ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরীর বিরুদ্ধে চাঁদাবাজির মামলা চলতি বছরেই বাংলাদেশে চালু হচ্ছে ই-পাসপোর্ট শেষ পর্যন্ত ভর্তুকি দিয়ে গ্যাসের দাম না বাড়ানোর সিদ্ধান্ত : বিইআরসি নরসিংদীর ‘জঙ্গি আস্তানায়’ যৌথবাহীনির অভিযান সমাপ্ত  এই মুহূর্তে কোনও রাজবন্দি নাই, যারা আছে তারা সবাই অপরাধী : তথ্যমন্ত্রী অনুসন্ধানী সাংবাদিকতা ছাড়া দুদক টিকবে না : দুর্নীতি দমন কমিশন নরসিংদীর 'জঙ্গি আস্তানা' থেকে দু'টি লাশ উদ্ধার, জঙ্গিদের আত্মসমর্পণের আহ্বান ৮ হাজার রোহিঙ্গার প্রথম তালিকা যাচাই করে তথ্য স্বীকার করেছে মায়ানমার জলবায়ু পরিবর্তনের ঝুঁকি মোকাবিলায় সম্মিলিত প্রচেষ্টার বিকল্প নেই : পানি সম্পদ মন্ত্রী

ঢাকা উত্তরা ফাইনান্সের ডিএমডিসহ ৩ কর্মকর্তা কারাগারে


অনলাইন ডেস্ক

আপডেট সময়: ৩১ ডিসেম্বর ২০১৭ ৬:৪৮ পিএম:
ঢাকা উত্তরা ফাইনান্সের ডিএমডিসহ ৩ কর্মকর্তা কারাগারে

খুলনা বাগেরহাটে প্রতারনা মামলায় ঢাকা উত্তরা ফাইনান্স এন্ড ইনভেস্টমেন্ট লিমিটেডের উপ ব্যবস্থাপনা পরিচালক (ডিএমডি) জাকির হোসেনসহ তিন কর্মকর্তাকে কারাগারে পাঠিয়েছে আদালত। রবিবার দুপুরে বাগেরহাট সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালত ৩ এ হাজির হয়ে জামিন আবেদন করলে বিচারক পলি আফরোজ তাদের জামিন আবেদন না মঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

উল্লেখ্য এ বছরের ২ মার্চ বাগেরহাটের মোল্লাহাট উপজেলার হাসিবুর রহমান নামের এক ব্যবসায়ীর দায়ের করা মামলায় এ আদেশ দেয় আদালত। এরা হলেন, ঢাকা উত্তরা ফাইনান্স এন্ড ইনভেস্টমেন্ট লিমিটেডের ডিএমডি জাকির হোসেন, রিকোভারি অফিসার হারুন আর রশিদ ও ভিজিটিং অফিসার বরকত হোসেন।

মামলার বাদি পক্ষের আইনজীবী উৎসব কুমার বৈরাগী জানান, বাগেরহাটের মোল্লাহাট উপজেলার মোল্লারকুল গ্রামের ব্যবসায়ী হাসিবুর রহমান ২০১৩ সালের ৩১ আগষ্ট কিস্তি চুক্তির মাধ্যমে ২০ লাখ ৯০ হাজার টাকা মূল্যের একটি মিনি ট্রাক ক্রয় করে। ট্রাক বাবদ নগদ ৪লাখ ৯০ হাজার ডাউন পেমেন্ট করেন হাসিবুর। বাকি ১৬ লাখ টাকা ৪ বছর ধরে কিস্তির মাধ্যমে পরিশোধের চুক্তি হয়। কিছু দিন গাড়ীটি পরিচালনার পর ঢাকায় র্দূঘটনার শিকার হয়। এসময় হাসিবুর রহমান বেশ কয়েক মাস হাসপাতালে চিৎকিসাধীন ও হাজতবাস করেন। জেল থেকে ছাড়া পেয়ে হাসিবুর রহমান দুর্ঘটনা কবলিত গাড়িটি নিজের জিম্মায় নেয়ার জন্য আদালতে আবেদন এবং বীমা কোম্পানির কাছে বীমার ক্ষতিপূরণ দাবি করেন। গাড়িটির কাগজপত্র ঢাকা উত্তরা ফাইনান্স এন্ড ইনভেস্টমেন্ট লিঃ এর নামে থাকায় বীমার টাকা তারা তুলে নেয়। এসময় গাড়ির মালিকানা ও বীমার টাকার জন্য মেট্রপলিটন ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতে আবেদন করেন তিনি। পরে আদালত কর্তৃক তদন্ত করে হাসিবুর রহমানকে গাড়ির মালিক বলে স্বীকৃতি দেয়। তখন ঢাকা উত্তরা ফাইনান্স এন্ড ইনভেস্টমেন্ট লিমিটেরে কর্মকর্তারা প্রতারণার আশ্রয় নিয়ে নতুন করে হাসিবুর রহমানের কাছে আরও পাঁচ লাখ টাকা দাবি করে। পুনরায় ত্রিশ লাখ টাকার চুক্তিনামা তৈরি করে। পরে তিনি প্রতারনার অভিযোগ এনে এ ঘটনায় আদালতে মামলা দায়ের করেন।

মামলার বাদি হাসিবুর রহমান বলেন, গাড়ীটি কেনার পর আমি প্রায় সর্বশান্ত হয়ে পড়েছি। ন্যায় বিচারের স্বার্থে আমি আদালতে মামলা করি। আদালত তাদের কারাগারে পাঠিয়েছে। যারা আমার সাথে প্রতারনা করেছে আমি তাদের দৃষ্টান্ত মূলক শাস্তির দাবী জানাই।


আপনার মন্তব্য লিখুন...

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ন বেআইনি
Top