Projonmo Kantho logo
About Us | Contuct Us | Privacy Policy
ঢাকা, শুক্রবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৮ , সময়- ৯:১৯ অপরাহ্ন
Total Visitor: Projonmo Kantho Media Ltd.
শিরোনাম
খালেদা জিয়ার চিকিৎসা বিতর্ক কেন ? বিএনপি প্রতিনিধিদলের সঙ্গে সাক্ষাত শেষে যা বললেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী | প্রজন্মকণ্ঠ পছন্দের হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য আবেদন খালেদা জিয়ার | প্রজন্মকণ্ঠ খালেদা জিয়া কারাগারের বাইরে থাকার সময়ও জনগণ তার ডাকে সাড়া দেয়নি : ওবায়দুল কাদের বিএনপি-জামায়াত ক্লিনহার্ট অপারেশন চালিয়ে আ'লীগের অসংখ্য নেতাকর্মীকে নির্যাতনের শিকার করেছিল : প্রধানমন্ত্রী  ধর্মমন্ত্রী ও ভূমিমন্ত্রীর  কড়া সমালোচনা করলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে রিজভীর নেতৃত্বে মিছিল করেছে বিএনপি আ'লীগের প্রতিনিধিদলের উত্তরবঙ্গ সফর শুরু । প্রজন্মকণ্ঠ   বিজিবি-বিএসএফ সম্মেলন : সীমান্ত হত্যা শূন্যের কোটায় নামিয়ে আনার অঙ্গীকার | প্রজন্মকণ্ঠ  সেমিফাইনাল নিশ্চিত করতে মাঠে নামছে স্বাগতিক বাংলাদেশ, আগামীকাল | প্রজন্মকণ্ঠ

ENERGY DRINK সেবনে পার্শ্বপ্রতিক্রিয়ায় ডেকে আনতে পারে মৃত্যুও | প্রজন্মকণ্ঠ 


ডেস্ক রিপোর্ট

আপডেট সময়: ৫ ফেব্রুয়ারী ২০১৮ ৩:৫৭ পিএম:
ENERGY DRINK সেবনে পার্শ্বপ্রতিক্রিয়ায় ডেকে আনতে পারে মৃত্যুও | প্রজন্মকণ্ঠ 

শরীরকে তরতাজা রাখতে সবসময় বাড়ির খাবার হাতের কাছে থাকে না। তাই খাবরের ঘাটতি মেটাতে বাজার থেকে অনেক সময় বলবর্ধক পানীয় কিনে খাওয়ার প্রচলন রয়েছে। তবে শরীর ঠিক রাখতে পানীয় গলধঃকরণ করার আগে একবার ভেবে নিন। সংশ্লিষ্ট পানীয়টি আদৌ আপনার শরীরে সইবে কিনা। মাত্রাতিরিক্ত বলবর্ধক পানীয় পান করলে উপকারের থেকে অপকারের সম্ভাবনাই বেশি। পার্শ্বপ্রতিক্রিয়ায় ডেকে আনতে পারে মৃত্যুও। তাই যে পানীয়ই পান করুন না কেন একটু চিন্তাভাবনা করে সে পথে এগোন। এক্ষেত্রে আখেরে লাভ আপনারই।

যাঁরা নিয়মিত বলবর্ধক পানীয় সেবন করেন বা খবর রাখেন, তাঁদের কাছে মনস্টার ও রেডবুল পরিচিত দুটি নাম। কয়েকদিন আগেই এই দুটি পানীয়ের বেশকিছু ক্যান একসঙ্গে কিনে ছিলেন নিক মিচেল নামের এক ব্যক্তি। শুধু কেনাই নয়। ছ’ঘণ্টায় একবারে ২৫ ক্যান পানীয় তিনি পান করে ফেলেন। পান করার পর তিনি ঘুমিয়ে পড়েন। তবে জাগতেই ঘটে বিপত্তি। একসঙ্গে এত পরিমাণের বলবর্ধক পানীয় গলধঃকরণ করায় অসুস্থ হয়ে পড়েন নিক। মারাত্মক মাথাব্যথায় আক্রান্ত হওয়ায় তড়িঘড়ি তাঁকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার সঙ্গে সঙ্গেই নিকের মস্তিষ্কের সিটিস্ক্যান করা হয়। তাতে দেখা যায়, বলবর্ধক পানীয়র সঙ্গে মাত্রাতিরিক্ত ক্যাফেইনে ভরেছে তাঁর পাকস্থলী। তাতেই মস্তিষ্কে রক্তক্ষরণ শুরু হয়েছে।

বলবর্ধক পানীয়র প্রভাবে মাত্র ৫১ বছর বয়সেই প্রায় বুড়িয়ে গেছেন নিক। সপ্তাহ খানেক ধরে পরের পর বেশ কয়েকটি ব্রেন স্ট্রোক হয়ে গেল তাঁর। মস্তিষ্কের অভ্যন্তরে অক্সিজেনের ঘাটতি থাকায় কথা বলার শক্তি হারিয়েছেন। চিকিৎসকদের চেষ্টায় প্রাণ বাঁচলেও নানারকম পার্শ্বপ্রতিক্রিয়ায় জর্জরিত নিক। নিজেই বললেন, বলবর্ধক পানীয়গুলি ড্রাগের থেকে কোনও অংশেই কম ক্ষতিকারক নয়। এক একটি ক্যানের পানীয়ে রয়েছে ১৬০ মিলিগ্রাম ক্যাফেইন। তুল্যমূল্য বিচারে যা দুকাপ কফি ও ১৪ চামচ চিনির সমতুল্য। এমনই ২৫টি ক্যান তাঁর পাকস্থলীতে গিয়েছে। পাল্লা দিয়ে জমেছে ক্যাফেইন। প্রায় মৃত্যুর মুখ থেকে ফিরে এসেছেন তিনি। তাই এসব পানীয়র বিক্রি বন্ধ হওয়া উচিত।

তাহলে কী দাড়াল বলবর্ধক পানীয় মানেই শরীরের জন্য উপাদেয় নাও হতে পারে। পাশপাশি যে কোনও পানীয় পান করতে গেল পরিমাণটা বুঝে নিতে হবে। একসঙ্গে অনেকটা পান করলেই যে শক্তি বেড়ে গেল এমন নয়। উলটো ফল হতে পারে। হাজারো পার্শ্বপ্রতিক্রিয়ায় মৃত্যু যেমন হতে পারে। তেমনই প্রায় নারকীয় শারীরিক যন্ত্রণা নিয়ে নিকের পরিস্থিতিও হতে পারে।


আপনার মন্তব্য লিখুন...

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ন বেআইনি
Top