Projonmo Kantho logo
About Us | Contuct Us | Privacy Policy
ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২২ ফেব্রুয়ারী ২০১৮ , সময়- ১:২২ পূর্বাহ্ন
Total Visitor: Projonmo Kantho Media Ltd.
শিরোনাম
দাড় কাউয়া মুক্ত আওয়ামী লীগ চাই, বিলবোর্ডের ছবি ভাইরাল কাল আদালতে খালেদার হাজিরার দিন যুক্তরাষ্ট্রকে চীনের সঙ্গে সম্ভাব্য যুদ্ধের প্রস্তুতি নিতে হবে: মার্কিন এ্যাডমিরাল 'গণতান্ত্রিক অধিকার আদায়ে আমরা দৃষ্টান্ত স্থাপন করব' নেতাকর্মীদের ধৈর্যহারা না হওয়ার আহ্বান মির্জা ফখরুলের পৃথিবীর কোনো দেশে নজির নেই বন্দির সাথে সহযোগি থাকার : সেতুমন্ত্রী | প্রজন্মকণ্ঠ ডিসেম্বরেই মন্ত্রিত্ব থেকে অবসরে ঘোষণা দলেন অর্থমন্ত্রী  | প্রজন্মকণ্ঠ বাড্ডায় ভেঙে পড়লো ইউলুপের বিম তরুণ প্রজন্মই জাতির ভবিষ্যৎ : স্পিকার | প্রজন্মকণ্ঠ  বিশ্ব ভালবাসা দিবসে প্রধানমন্ত্রী বরাবর খোলা চিঠি দিলেন ঝিনাইদহের সেই রেল আব্দুল্লাহ

খালেদাকে পুরনো জেলে রাখা পেছনে এরশাদের যোগসাজশ : অলি আহমদ | প্রজন্মকণ্ঠ 


নিজস্ব প্রতিবেদক, প্রজন্মকণ্ঠ

আপডেট সময়: ১০ ফেব্রুয়ারী ২০১৮ ৮:২০ পিএম:
খালেদাকে পুরনো জেলে রাখা পেছনে এরশাদের যোগসাজশ : অলি আহমদ | প্রজন্মকণ্ঠ 

জিয়া আরফানেজ ট্রাস্ট দূর্নীতি মামলায় সাজাপ্রাপ্ত বাংলাদেশের ৩ বার নির্বাচিত প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী ও বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াকে পরিত্যক্ত কারাগারে বন্দি রাখার পেছনে প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ দূত এইচ এম এরশাদের যোগসাজশ রয়েছে বলে সন্দেহ করেছেন এলডিপি চেয়ারম্যান অলি আহমদ।  তিনি বলেন, ‌‘আমরা শুনেছি তাকে (খালেদা জিয়া) কয়েদির কাপড় পরানো হয়েছে এবং পুরনো একটি জেলে রাখা হয়েছে। এটা কী কারণে করা হল?’

দুর্নীতি মামলায় দন্ডিত খালেদা জিয়াকে কারাগারে নেওয়ার দুই দিন পর শনিবার এক সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্যে বিএনপির জোট সঙ্গী দলটির নেতা এই সন্দেহের কথা জানান। এলডিপি চেয়ারম্যান বলেন, ‘আমি তো মনে করি এরশাদ (সাবেক রাষ্ট্রপতি) মুক্ত আছে। তাকে নাজিমউদ্দিন রোডের কারাগারে রাখা হয়েছিলে। এটা হয়ত সরকার, আওয়ামী লীগ এবং এরশাদ ঐক্যবদ্ধভাবে এই কাজটা করেছে।’

তিনি বলেন, গত বৃহস্পতিবার রায়ের পর জাতীয় পার্টির ইয়াহিয়া চৌধুরী সংসদে বলেছিলেন- “বেগম জিয়া একদিন জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদকে বিনা অপরাধে কারাগারে পাঠিয়েছিলেন। ভাগ্যের কী নির্মম পরিহাস সেই জেলখানায় এখন খালেদা জিয়া।’’

আজ থেকে ২৮ বছর আগে কারাগারে থাকা অবস্থায় হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ একটি বরই গাছ লাগিয়েছিলেন। সেই গাছে এখন বরই ধরেছে। সুযোগ থাকলে খালেদা জিয়াকে সেই বরই খেতে দেওয়া হোক।

এরশাদ যখন বন্দি ছিলেন, খালেদা জিয়ার তখনকার সরকারের মন্ত্রী অলি বলেন, ‘সরকার তো দুইটা নতুন জেল নির্মাণ করেছে। উনাকে (খালেদা) সসম্মানে সেখানে রাখতে পারত।  একটা পরিত্যক্ত জেলে তাকে নেওয়ার প্রয়োজন ছিল না।’

এই রকম একটা জায়গায় বেগম জিয়াকে কেন রাখা হল না, বর্তমান সরকারকে একদিন তার জবাব একদিন দিতে হবে, যোগ করেন তিনি।

খালেদার মুক্তির দাবিতে বিএনপির দেওয়া সব কর্মসূচির সঙ্গে একাত্মতা প্রকাশ করে এলডিপি চেয়ারম্যান বলেন, ‘নির্বাচন থেকে দূরে রাখার জন্য, বিএনপিকে ধ্বংস করার জন্য বেগম খালেদা জিয়াকে অন্যায়ভাবে সাজা দেওয়া হয়েছে। এটা সরকারের পূর্ব পরিকল্পনার অংশ বলে আমরা মনে করি।’

তেজগাঁওয়ে এলডিপি কার্যালয়ে এই সংবাদ সম্মেলনে দলের মহাসচিব রেদোয়ান আহমেদ, সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য আবদুল করীম আব্বাসী, আবদুল গনি, কামালউদ্দিন মোস্তফা, জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব শাহাদাত হোসেন সেলিম উপস্থিত ছিলেন।


আপনার মন্তব্য লিখুন...

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ন বেআইনি
Top