Projonmo Kantho logo
About Us | Contuct Us | Privacy Policy
ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২২ ফেব্রুয়ারী ২০১৮ , সময়- ১:১৮ পূর্বাহ্ন
Total Visitor: Projonmo Kantho Media Ltd.
শিরোনাম
দাড় কাউয়া মুক্ত আওয়ামী লীগ চাই, বিলবোর্ডের ছবি ভাইরাল কাল আদালতে খালেদার হাজিরার দিন যুক্তরাষ্ট্রকে চীনের সঙ্গে সম্ভাব্য যুদ্ধের প্রস্তুতি নিতে হবে: মার্কিন এ্যাডমিরাল 'গণতান্ত্রিক অধিকার আদায়ে আমরা দৃষ্টান্ত স্থাপন করব' নেতাকর্মীদের ধৈর্যহারা না হওয়ার আহ্বান মির্জা ফখরুলের পৃথিবীর কোনো দেশে নজির নেই বন্দির সাথে সহযোগি থাকার : সেতুমন্ত্রী | প্রজন্মকণ্ঠ ডিসেম্বরেই মন্ত্রিত্ব থেকে অবসরে ঘোষণা দলেন অর্থমন্ত্রী  | প্রজন্মকণ্ঠ বাড্ডায় ভেঙে পড়লো ইউলুপের বিম তরুণ প্রজন্মই জাতির ভবিষ্যৎ : স্পিকার | প্রজন্মকণ্ঠ  বিশ্ব ভালবাসা দিবসে প্রধানমন্ত্রী বরাবর খোলা চিঠি দিলেন ঝিনাইদহের সেই রেল আব্দুল্লাহ

‌‘শিক্ষামন্ত্রীর পদত্যাগ প্রশ্নফাঁসের সমাধান নয়’


অনলাইন ডেষ্ক

আপডেট সময়: ১৩ ফেব্রুয়ারী ২০১৮ ৪:৪২ পিএম:
‌‘শিক্ষামন্ত্রীর পদত্যাগ প্রশ্নফাঁসের সমাধান নয়’

জনপ্রিয় লেখক ও শাহজালাল বিজ্ঞান প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের কম্পিউটার সায়েন্স এন্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের শিক্ষক অধ্যাপক মুহম্মদ জাফর ইকবাল বলেছেন, শিক্ষামন্ত্রীর পদত্যাগ এর সঠিক সমাধান নয়। এছাড়া ইন্টারনেট ও ফেসবুক বন্ধ করে প্রশ্নফাঁসের সমাধান করা যাবে না। প্রশ্নফাঁসের মূল কারণ উদ্ঘাটন করে এর সমাধান করাটাই সব চেয়ে বেশি প্রয়োজন। কীভাবে প্রশ্ন ফাঁস হচ্ছে তা আগে খুঁজে বের করতে হবে।

আজ মঙ্গলবার সিলেটের মীরের ময়দানে বিশ্ব বেতার দিবসের অনুষ্ঠানে সাংবাদিকদের প্রশ্নে এ কথা বলেন তিনি।

জাফর ইকবাল বলেন, প্রশ্নফাঁসের ঘটনায় জাতীয় সংসদে শিক্ষামন্ত্রীর পদত্যাগ চাওয়া হয়েছে। কিন্তু এটি সঠিক সমাধান নয়। সবার আগে উচিত কোথা থেকে কারা প্রশ্নফাঁস করছে সেটি খুঁজে বের করা এবং জড়িতদের শাস্তি নিশ্চিত করা। 

তিনি আরও বলেন, এভাবে প্রশ্নফাঁস চলতে থাকলে এদেশে শিক্ষার কোনো গুরুত্ব থাকবে না। কোন শিক্ষার্থী ভালো ফলাফল করলেও তাকে আমরা ভালো বলতে পারবো না। সে হয়তো ফাঁস হওয়া প্রশ্নে পরীক্ষা দিয়ে ভালো ফলাফল করেছে। আবার ভালো ফলাফল করতে না পারা কোন শিক্ষার্থীকে আমরা খারাপও বলতে পারবো না। কারণ সে হয়তো ফাঁস হওয়া প্রশ্নের খবর পায়নি। শিক্ষা ব্যবস্থাকে রক্ষা করতে হলে সরকারকে প্রশ্নফাঁস বন্ধ করতেই হবে। 

ড. মুহম্মদ জাফর ইকবাল বলেন, সরকার আন্তরিক থাকলে প্রশ্নপত্র ফাঁস রোধ করা সম্ভব। প্রশ্নফাঁস যদি হয়, তবে যতই চেষ্টা করা হোক লেখাপড়ার কোনো গুরুত্ব থাকবে না। ইন্টারনেট বন্ধ করে এটা বন্ধ করা যাবে না। প্রশ্ন যে ছাপানো হয় তার পুরো প্রক্রিয়ার মধ্যে কোনো নিরাপত্তা নেই। একজন প্রশ্ন করে, আরেকজন ছাপাই, আরেকজন নিয়ে আসে। এভাবে করলে তো হবে না। খুবই নিরাপত্তায় এটা করতে হবে।

এতোদিন সরকার প্রশ্নফাঁসের বিষয়টি স্বীকার করেনি উল্লেখ করে জাফর ইকবাল বলেন, ‘প্রশ্নফাঁস ঠেকাতে আমি বৃষ্টিতে ভিজে শহীদ মিনারে যখন আন্দোলন করেছি, তখন সরকার গুরুত্ব দেয়নি। প্রশ্নফাঁসের কথা স্বীকারই করতে চায়নি সরকার। এখন স্বীকার করছে সরকার। কিন্তু কার্যকর কোন ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে না। ইন্টারনেট বন্ধ না করে প্রশ্নফাঁসের উৎস খুঁজলে কাজের কাজ হতো।


আপনার মন্তব্য লিখুন...

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ন বেআইনি
Top