Projonmo Kantho logo
About Us | Contuct Us | Privacy Policy
ঢাকা, শনিবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৮ , সময়- ২:০৬ পূর্বাহ্ন
Total Visitor: Projonmo Kantho Media Ltd.
শিরোনাম
খালেদা জিয়ার চিকিৎসা বিতর্ক কেন ? বিএনপি প্রতিনিধিদলের সঙ্গে সাক্ষাত শেষে যা বললেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী | প্রজন্মকণ্ঠ পছন্দের হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য আবেদন খালেদা জিয়ার | প্রজন্মকণ্ঠ খালেদা জিয়া কারাগারের বাইরে থাকার সময়ও জনগণ তার ডাকে সাড়া দেয়নি : ওবায়দুল কাদের বিএনপি-জামায়াত ক্লিনহার্ট অপারেশন চালিয়ে আ'লীগের অসংখ্য নেতাকর্মীকে নির্যাতনের শিকার করেছিল : প্রধানমন্ত্রী  ধর্মমন্ত্রী ও ভূমিমন্ত্রীর  কড়া সমালোচনা করলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে রিজভীর নেতৃত্বে মিছিল করেছে বিএনপি আ'লীগের প্রতিনিধিদলের উত্তরবঙ্গ সফর শুরু । প্রজন্মকণ্ঠ   বিজিবি-বিএসএফ সম্মেলন : সীমান্ত হত্যা শূন্যের কোটায় নামিয়ে আনার অঙ্গীকার | প্রজন্মকণ্ঠ  সেমিফাইনাল নিশ্চিত করতে মাঠে নামছে স্বাগতিক বাংলাদেশ, আগামীকাল | প্রজন্মকণ্ঠ

রাবি অধ্যাপককে মারধরের প্রতিবাদে বিক্ষোভ : সড়ক অবরোধ


আহমেদ ফরিদ, রাবি প্রতিনিধি

আপডেট সময়: ১৭ ফেব্রুয়ারী ২০১৮ ৯:৫৪ এএম:
রাবি অধ্যাপককে মারধরের প্রতিবাদে বিক্ষোভ : সড়ক অবরোধ

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) এক শিক্ষককে লাঞ্ছিত ও মারধরের প্রতিবাদে বিক্ষোভ সমাবেশ করেছে শিক্ষার্থীরা। বৃহস্পতিবার সকাল ১১টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান ফটকের সামনে ঢাকা-রাজশাহী মহাসড়ক তিনঘণ্টা অবরোধ করে কর্মসূচি পালন করা হয়।

মারধরের শিকার শিক্ষকের নাম এনামুল জহির। তিনি বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক। মারধরকারী ইন্টার্ন চিকিৎসক কামাল ছাড়া বাকিদের পরিচয় পাওয়া যায়নি।

গতকাল বুধবার রাত সাড়ে ১১টার দিকে হাসপাতালের ৩০ নম্বর ওয়ার্ড দিয়ে যাওয়ার সময় দায়িত্বরত ইন্টার্ন পিংকির সঙ্গে এনামুল হকের ধাক্কা লাগে। এ সময় পিংকি তাকে অপমানজনক কথা বললে এনামুল তাকে ননসেন্স বলে মন্তব্য করেন। একপর্যায়ে পিংকি ফোন করলে কামালসহ কয়েকজন ইন্টার্ন এনামুল হককে মারধর করে।

এ ঘটনার সকাল ১১টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের রবীন্দ্র কলাভবনের সামনে থেকে বিক্ষোভ সমাবেশ নিয়ে প্রধান ফটকে জড়ো হয় শিক্ষার্থীরা। পরে তারা সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ শুরু করে। বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনের পক্ষ থেকে এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের আশ্বাস দিলেও শিক্ষার্থীরা আন্দোলন অব্যাহত রাখেন। এতে প্রধান ফটক থেকে কাটাখালি পর্যন্ত প্রায় তিন কিলোমিটার রাস্তায় ব্যাপক যানজটের সৃষ্টি হয়।

আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীরা জানান, আমাদের শিক্ষককে আমরা কখনোই এভাবে দেখতে চাই না। রাস্তায় কুপিয়ে শিক্ষককে মারা হবে, হাসপাতালে গেলে মারধর করা হবে এগুলো আমরা মেনে নিবো না। এ সময় শিক্ষার্থীরা জড়িতদের বিরুদ্ধে দ্রুত ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি জানান।

প্রক্টর অধ্যাপক লুৎফর রহমান বলেন, ‘যে শিক্ষক আহত হয়েছে তিনি তোমাদের শিক্ষক কিন্তু আমাদের সহকর্মী। আমাদেরও খারাপ লাগছে। আমরা এ জড়িতদের ব্যবস্থা নিতে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিবো।’

মতিহার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মেহেদী হাসান বলেন, শিক্ষার্থীদের দাবি যৌক্তিক। তারা শান্তিপূর্ণভবে আন্দোলন করছে। অভিযোগ পেলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিবো।


আপনার মন্তব্য লিখুন...

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ন বেআইনি
Top