Projonmo Kantho logo
About Us | Contuct Us | Privacy Policy
ঢাকা, শনিবার, ২০ অক্টোবর ২০১৮ , সময়- ৪:৩৩ পূর্বাহ্ন
Total Visitor: Projonmo Kantho Media Ltd.
শিরোনাম
সাজাপ্রাপ্ত আসামীদের নিয়ে ডা. কামালের সরকারবিরোধী ঐক্য ব্যর্থ হবে : বাণিজ্যমন্ত্রী সিরিয়ায় মার্কিন বিমান হামলায় শিশুসহ ৩২ জন বেসামরিক ব্যক্তি নিহত আগামী নির্বাচনের রোডম্যাপ ঘোষণা আসছে, জাতীয় পার্টির মহাসমাবেশ আজ আওয়ামী লীগের জনপ্রিয়তা আকাশচুম্বি, জনগণ হৃদয় দিয়ে ভালোবাসে : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী | প্রজন্মকণ্ঠ মানুষের ভিড়ের ওপর দিয়ে চলে গেল ট্রেন, ৫০ জন নিহত | প্রজন্মকণ্ঠ তরুণী ও কম বয়সী রোহিঙ্গা মেয়েরা পাচারের শিকার হচ্ছে : জাতিসংঘ যারা বহিষ্কারের ঘোষণা দিয়েছেন তারা বিকল্পধারার কেউ নন : মাহী বি চৌধুরী  আমরা বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের স্বাধীনতা এখনও পুরোপুরি অর্জন করতে পারিনি : রাষ্ট্রপ্রতি সর্বত্র মানুষের মঙ্গলের সুযোগ করে দিতে শেখ হাসিনার সরকার কাজ করছে : অর্থমন্ত্রী  সংস্কৃতি অঙ্গনে কালো ছায়া নেমে এলো | প্রজন্মকণ্ঠ

রানা প্লাজার ধস : ২৪ এপ্রিল শ্রমিক নিরাপত্তা দিবস ঘোষণার দাবি । প্রজন্মকণ্ঠ


নিজস্ব প্রতিবেদক, প্রজন্মকণ্ঠ

আপডেট সময়: ২৪ এপ্রিল ২০১৮ ৪:৩৯ পিএম:
রানা প্লাজার ধস : ২৪ এপ্রিল শ্রমিক নিরাপত্তা দিবস ঘোষণার দাবি । প্রজন্মকণ্ঠ

২৪ এপ্রিল শোক ও নিরাপত্তা দিবস হিসেবে পোশাক কারখানাগুলোতে ছুটি ঘোষণার দাবি জানিয়েছে বিভিন্ন সংগঠন। সাভারের ধসে যাওয়া রানা প্লাজার সামনে আজ মঙ্গলবার বাংলাদেশ গার্মেন্ট শ্রমিক সংহতির আয়োজনে মানববন্ধন, সমাবেশ ও বিক্ষোভ মিছিল করেছেন ক্ষতিগ্রস্ত শ্রমিকরা।

কর্মসূচিতে যোগ দিতে সকাল থেকেই ক্ষতিগ্রস্ত শ্রমিক ও তাদের পরিবারের সদস্যসহ বিভিন্ন সংগঠনের নেতাকর্মীরা ধসে পড়া ভবনের সামনে জড়ো হতে থাকেন। সকাল ১০টার দিকে মানববন্ধন হয়, এরপর হয় সমাবেশ।

এ সময় বক্তব্য দেন বাংলাদেশ গার্মেন্ট শ্রমিক সংহতির সমন্বয়ক তাসলিমা আখতার, সংগঠনের কেন্দ্রীয় নেতা আবু শামা, সাভার অঞ্চলের নেতা আলম মাতব্বর ও ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের সদস্য বাবু মিয়া প্রমুখ।

তাসলিমা আখতার বলেন, দেশের সব পোশাকশ্রমিকই আশা করেছিলেন, সরকার ২৪ এপ্রিল শ্রমিক নিরাপত্তা দিবস ও শোক দিবস হিসেবে সব কারখানার জন্য ছুটি ঘোষণা করবে। সেই সুযোগে নিহতদের স্মরণ করার মধ্য দিয়ে দিনটি বিশেষভাবে পালন করতে পারবেন শ্রমিকরা।

কিন্তু ভবনধসের দুই বছর পার হতে চললেও ক্ষতিগ্রস্তরা এখনও যথাযথ ক্ষতিপূরণ পাননি। গ্লোবাল ট্রাস্ট ফান্ড ও প্রাইমার্কের পক্ষ থেকে যে পদ্ধতিতে আর্থিক সহায়তা দেয়া হচ্ছে, তা কোনো ক্ষতিপূরণ নয়, অনুদান। ওই অনুদানের টাকা আইএলওর ১২১ ধারা অনুযায়ী হতাহত ও নিখোঁজদের পরিবারের মধ্যে দেয়া হচ্ছে, তবে এতে বৈষম্য রয়েছে।


আপনার মন্তব্য লিখুন...

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ন বেআইনি
Top