Projonmo Kantho logo
About Us | Contuct Us | Privacy Policy
ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৬ অক্টোবর ২০১৮ , সময়- ৩:৩৪ অপরাহ্ন
Total Visitor: Projonmo Kantho Media Ltd.
শিরোনাম
জঙ্গি আস্তানা : নরসিংদীর শেখেরচর ও মাধবদীতে দুটি বাড়ি ঘিরে রেখেছে পুলিশ  ওয়েজবোর্ডের আওতায় আসছে অনলাইন নিউজপোর্টাল রামকৃষ্ণ মিশনে দুর্গা আরাধনা দেখলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তারেক জিয়াকে বিএনপি প্রধানের দায়িত্ব থেকে সরিয়ে দেবার জন্য অনুরোধ করেছে আন্তর্জাতিক মহল নিজস্ব প্রস্তাবনা উপস্থাপন করতে না দেয়ায় অপমানিত বোধ করেছি : মাহবুব তালুকদার  ময়মনসিংহ পৌরসভাকে সিটি কর্পোরেশন ঘোষণা, সর্বস্তরে আনন্দের বন্যা গ্রেনেড হামলার মামলার রায়ে আমরা সন্তুষ্ট কিন্তু কিছু আপত্তি আছে : শাহরিয়ার আলম ড. কামাল বিএনপিতে যোগ দিয়েছেন, আলহামদুলিল্লাহ : খালেদা জিয়া জাফরুল্লাহর বিরুদ্ধে সেনাকর্মকর্তার থানায় সাধারণ ডায়েরি, তদন্তে ডিবি কেন কমিশন সভা বর্জন করেছেন কমিশনার মাহবুব তালুকদার

কক্সবাজারের তালিকাভুক্ত ইয়াবা গডফাদারা সবাই প্রভাবশালী, নামের তালিকা


নিজস্ব প্রতিবেদক, প্রজন্মকণ্ঠ

আপডেট সময়: ২৬ মে ২০১৮ ১:৩১ পিএম:
কক্সবাজারের তালিকাভুক্ত ইয়াবা গডফাদারা সবাই প্রভাবশালী, নামের তালিকা

কক্সবাজারের ইয়াবা ব্যবসার যে ক’জন পৃষ্ঠপোষক বা গডফাদার রয়েছেন তারা সবাই প্রভাবশালী। অধিকাংশ গডফাদার সব সময় থাকেন ধরাছোঁয়ার বাইরে। ইয়াবা গডফাদাররা সরাসরি ইয়াবা পাচারের সঙ্গে জড়িত না থাকায় তাদের অনেকের বিরুদ্ধে কোনো মামলা হয়নি। নিজের বা দলীয় প্রভাব খাটিয়ে ধরাছোঁয়ার বাইরে থেকে গডফাদাররা ইয়াবা ব্যবসার নিয়ন্ত্রণ করে আসছেন। চলমান মাদকবিরোধী অভিযানে এবার ইয়াবার গাডফাদাররা পড়েছেন আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর টার্গেটে।

শুক্রবার সকালে কক্সবাজারের মেরিনড্রাইভ রোডে তালিকাভুক্ত ইয়াবা গডফাদার আকতার কামালের গুলিবিদ্ধ মরদেহ উদ্ধারের পর থেকে আত্মগোপনে চলে গেছে অধিকাংশ ইয়াবা গডফাদার। আকতার কামালের পরিবারের দাবি, র‍্যাব পরিচয়ে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় তাকে বাসা থেকে তুলে নিয়ে যাওয়া হয়।

কক্সবাজারের বিভিন্ন উপজেলার ইয়াবার পৃষ্ঠপোষকদের তালিকা প্রণয়ন করেছে সরকারি গোয়েন্দা সংস্থা। এই তালিকার অধিকাংশ গডফাদার বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতা বা জনপ্রতিনিধির আশীর্বাদপুষ্ট।সরকারি সংস্থার তালিকা অনুযায়ী কক্সবাজার শহরের ইয়াবার প্রধান পৃষ্ঠপোষক হলেন- শাহাজাহান আনসারী, পিতা- আনসারী, লেগুনা বীচ হোটেল, কলাতলী, সদর, কক্সবাজার।

এছাড়াও পৃষ্ঠপোষক হিসেবে কক্সবাজার শহর থেকে যে নামগুলো রয়েছে- কাউন্সিলর মিজানুর রহমান (২নং ওয়ার্ড), উত্তর নুনিয়ারছড়া, কক্সবাজার পৌরসভা। আবু নফর (রোহিঙ্গা নফর হিসেবে পরিচিত), পিতা- মো. সুলতান, সাং- দক্ষিণ ডিককুল, সদর, কক্সবাজার। আবুল কালাম প্রকাশ ইয়াবা কালাম প্রকাশ কন্ট্রাক্টর কালাম, পিতা- লালু, বাসটার্মিনাল, সদর, কক্সবাজার।

ইয়াবার রাজধানী টেকনাফের ইয়াবার প্রধান পৃষ্ঠপোষক হিসেবে আছেন হাজী সাইফুল করিম (৩৮)। তিনি টেকনাফের শীলবনিয়াপাড়া ডা. হানিফের ছেলে। বর্তমান ঠিকানা- ভিআইপি টাওয়ার, কাজীরদেউরি, চট্টগ্রাম।

এছাড়াও পৃষ্ঠপোষক হিসেবে যাদের সনাক্ত করা হয়েছে তারা হলেন- মো. আবদুস শুক্কুর (৩৮), পিতা- মৃত এজাহার মিয়া কোম্পানী (সংসদ সদস্য আবদুর রহমান বদির ভাই), সাং- অলিয়াবাদ, পোস্ট অফিস ও থানা টেকনাফ, কক্সবাজার।

আবদুল আমিন (৩৫), পিতা- মৃত, এজাহার মিয়া কোম্পানী (সংসদ সদস্য আবদুর রহমান বদির ভাই), সাং অলিয়াবাদ, পোস্ট অফিস ও থানা- টেকনাফ, কক্সবাজার।

মো. নুরুল হুদা (৩৫), ইউপি সদস্য, পিতা- মৃত আবুল কাশেম, সাং-পশ্চিম লেদা, পোস্ট অফিস হ্নীলা, থানা টেকনাফ, কক্সবাজার। মোস্তাক মিয়া (৩৪), পিতা- জাফর আহমদ চেয়ারম্যান, সাং লেঙ্গুরবিল, টেকনাফ সদর, পোস্ট অফিস ও থানা টেকনাফ, কক্সবাজার।

দিদার মিয়া (৩২), পিতা- জাফর আহমদ চেয়ারম্যান, সাং- লেঙ্গুরবিল, টেকনাফ সদর, পোস্ট অফিস ও থানা টেকনাফ, কক্সবাজার (বর্তমানে চট্টগ্রামে)।

মো. শাহজাহান (৩০), টেকনাফ সদর ইউপি চেয়ারম্যান ও টেকনাফ উপজেলা শ্রমিকলীগের সভাপতি, পিতা- জাফর আহমদ চেয়ারম্যান, সাং- লেঙ্গুরবিল, টেকনাফ সদর, পোস্ট অফিস ও থানা টেকনাফ, কক্সবাজার।

সাহেদুর রহমান নিপু (২৪), পিতা- ওসি আবদুর রহমান (নিপু সংসদ সদস্য আবদুর রহমান বদির ভাগিনা), সাং- বাজারপাড়া, পোস্ট অফিস সাবরাং, থানা টেকনাফ, কক্সবাজার।

মো. আমিন (৩৭), পিতা- কালা মোহাম্মদ আলী, সাং ডেইলপাড়া, পোস্ট অফিস ও থানা টেকনাফ, কক্সবাজার (বর্তমানে চট্টগ্রামে)। নুরুল আমিন (৩৪), পিতা- কালা মোহাম্মদ আলী, সাং- ডেইলপাড়া, পোস্ট অফিস ও থানা টেকনাফ, কক্সবাজার (বর্তমানে চট্টগ্রামে)।

মৌলভী মুজিবুর রহমান (৩৪), পৌর কাউন্সিলর, পিতা- মৃত এজাহার মিয়া কোম্পানী (সংসদ সদস্য আবদুর রহমান বদির ভাই), সাং- চৌধুরীপাড়া, পোস্ট অফিস ও থানা টেকনাফ, কক্সবাজার।

মো. সফিক (২৩), পিতা- মৃত এজাহার মিয়া কোম্পানী (সংসদ সদস্য আবদুর রহমান বদির ভাই), সাং- চৌধুরীপাড়া, পোস্ট অফিস ও থানা টেকনাফ, কক্সবাজার। মো. ফয়সাল (২০), পিতা- মৃত এজাহার মিয়া কোম্পানী (সংসদ সদস্য আবদুর রহমান বদির ভাই), সাং- চৌধুরীপাড়া, পোস্ট ও অফিস থানা টেকনাফ, কক্সবাজার।

এনামুল হক (২০), ইউপি সদস্য, পিতা- মৃত মোজাহের মিয়া, সাং- নাজিরপাড়া, টেকনাফ সদর, পোস্ট অফিস ও থানা- টেকনাফ, কক্সবাজার। মো. একরাম হোসেন (৩০), পিতা- হাজী ফজল আহম্মদ, সাং- মৌলভীপাড়া, পোস্ট অফিস ও থানা টেকনাফ, কক্সবাজার।

আবদুর রহমান (২৭), পিতা- হাজী ফজল আহম্মদ,সাং- মৌলভীপাড়া, পোস্ট অফিস ও থানা টেকনাফ, কক্সবাজার। ছৈয়দ হোসেন মেম্বার (৪২), পিতা- মৃত কালা মিয়া (প্রকাশ নাগুরা), সাং- নাজিরপাড়া, পোস্ট অফিস ও থানা টেকনাফ, কক্সবাজার।

শামসুল আলম মার্কিন (৪৭), পিতা- মৌলভী মো. আলী হোসেন, সাং- নয়াপাড়া, পোস্ট অফিস সাবরাং, থানা টেকনাফ, কক্সবাজার।

আকতার কামাল (৩৬) ইউপি সদস্য, পিতা- মৃত নজির আহমদ মেম্বার (সংসদ সদস্য আবদুর রহমান বদির বেয়াই) সাং- আলীর ডেইল, পোস্ট অফিস সাবরাং, থানা- টেকনাফ, কক্সবাজার।

শাহেদ কামাল (৩০), পিতা- মৃত নজির আহমদ মেম্বার, (সংসদ সদস্য আবদুর রহমান বদির বেয়াই), সাং- আলীর ডেইল, পোস্ট অফিস সাবরাং, থানা টেকনাফ, কক্সবাজার। মৌলভী আজিজ (৪০), বাহারছড়া ইউপি চেয়ারম্যান, পিতা- মৌলভী নাছির উদ্দিন, সাং- পুরানপাড়া, পোস্ট অফিস শামলাপুর, থানা টেকনাফ, কক্সবাজার। সভাপতি, বাহারছড়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ।

মৌলভী রফিক উদ্দিন (৪০), ভাইস চেয়ারম্যান, টেকনাফ উপজেলা পরিষদ, পিতা- মৌলভী নাছির উদ্দিন, সাং- পুরানপাড়া, পোস্ট অফিস শামলাপুর, থানা টেকনাফ, কক্সবাজার। হাবিব উল্লাহ হাবিব (৩৫), পিতা- মোহাম্মদ হোসেন, সাং- শামলাপুর, পোস্ট অফিস শামলাপুর, থানা টেকনাফ, কক্সবাজার।

মৌলভী বশির প্রকাশ ডাইলা (৪৪), পিতা- মৃত সুলতান আহমদ, সাং- কচুবনিয়া, পোস্ট অফিস সাবরাং, থানা- টেকনাফ, কক্সবাজার। মৌলভী বোরহান (৪৬), পিতা- মৃত মৌলভী হান্নান, সাং- খানকারপাড়া, পোস্ট অফিস ও থানা- টেকনাফ, কক্সবাজার।

শাহ আলম (২৮), পিতা- মৃত নুরুল ইসলাম (প্রকাশ দেবাল্যা), সাং- পুরান পল্লানপাড়া, পোস্ট অফিস ও থানা টেকনাফ, কক্সবাজার। জিয়াউর রহমান, পিতা-হাজী মো. ইসলাম, সাং- নাজিরপাড়া, পোস্ট অফিস ও থানা টেকনাফ, কক্সবাজার।

আবদুর রহমান (২৬), পিতা- হাজী মো. ইসলাম, সাং- নাজিরপাড়া, পোস্ট অফিস ও থানা টেকনাফ, কক্সবাজার। মোজাম্মেল হক (২৫), পিতা- মৃত আবদুল গফ্ফার, সাং- মধ্যম জালিয়াপাড়া, পোস্ট অফিস ও থানা টেকনাফ, কক্সবাজার।

জোবাইর হোসেন (৩৩), পিতা- ওসমান গণি, সাং- দক্ষিণ জালিয়াপাড়া, টেকনাফ পৌরসভা, টেকনাফ, কক্সবাজার। নুরুল বশর প্রকাশ নুশ্সাদ(৩০), পৌর কাউন্সিলর ও যুগ্ম-আহ্বায়ক টেকনাফ পৌর যুবলীগ, পিতা- মো. ইউনুছ, সাং- কুলালপাড়া, টেকনাফ পৌরসভা।

কামরুল হাসান রাসেল (৩২), পিতা- হায়দার আলী (সংসদ সদস্য বদির ফুপাতো ভাই), সাং- খানকারপাড়া (খানকারডেইল), টেকনাফ সদর, টেকনাফ। আবদুল হাকিম প্রকাশ ডাকাত আবদুল হাকিম (৪০), মিয়ানমারের নাগরিক, পিতা- মৃত জানে আলম, বর্তমান ঠিকানা- পুরান পল্লানপাড়া (২ নং ওয়ার্ড), টেকনাফ পৌরসভা, টেকনাফ।

মো. আবদুল্লাহ (৩১), ইউপি সদস্য, পিতা- আবুল বশর, সাং- হাতিয়ারঘোনা, টেকনাফ সদর, টেকনাফ। জাফর আলম প্রকাশ টিটি জাফর (৩০), পিতা- মৃত মো. হোছন প্রকাশ নাপাইগা হোছন, সাং- জালিয়াপাড়া, পোস্ট অফিস ও থানা টেকনাফ, কক্সবাজার।

আবদুর রহমান (৩২), পিতা- আলী আহম্মদ চেয়ারম্যান, সাং- গোদারবিল, টেকনাফ সদর, কক্সবাজার। জিয়াউর রহমান (২৮), পিতা- আলী আহম্মদ চেয়ারম্যান, সাং- গোদারবিল, টেকনাফ সদর, কক্সবাজার।

উপজেলা যুবলীগের সভাপতি নুরুল আলম চেয়ারম্যান (৪৩), পিতা- মৃত শফি মেম্বার। তিনি সরাসরি ইয়াবা ব্যবসার সাথে জড়িত না থাকলেও ইয়াবা ব্যবসায়ীদের পৃষ্ঠপোষকতা করে থাকেন। সাং- গোদারবিল, টেকনাফ সদর, পোস্ট অফিস ও থানা টেকনাফ, কক্সবাজার।

রাশেদ মো. আলী (৩২), পিতা- অধ্যাপক মো. আলী (টেকনাফ উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাবেক এমপি কক্সবাজার-৪), সাং- ফুলের ডেইল, পো. হ্নীলা, থানা- টেকনাফ, কক্সবাজার।

মাহবুব মোরশেদ (৩৭), পিতা- অধ্যাপক মো. আলী (টেকনাফ উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাবেক এমপি কক্সবাজার-৪), সাং- ফুলের ডেইল, পোস্ট অফিস হ্নীলা, থানা টেকনাফ, কক্সবাজার।

মুহাম্মদ শাহ মালু (৫০), পিতা- রুহুল আমিন, সাং- বাজারপাড়া, পোস্ট অফিস হ্নীলা, থানা- টেকনাফ, কক্সবাজার। নির্মল ধর (৫৫), পিতা- ফকির চন্দ্র ধর, সাং- বাজারপাড়া, পোস্ট অফিস হ্নীলা, থানা- টেকনাফ, কক্সবাজার।

মো. নুরুল কবির (৩৬), পিতা- মৃত, আবুল কাশেম, সাং-পশ্চিম লেদা, পোস্ট অফিস হ্নীলা, থানা- টেকনাফ, কক্সবাজার। মারুফ বিন খলিল প্রকাশ বাবু (২৯), পিতা- মৃত ইব্রাহিম খলিল (গডফাদার আবদুস শুক্কুরের হিসাব রক্ষক) সাং- অলিয়াবাদ, টেকনাফ পৌরসভা, টেকনাফ।

ইউছুপ জালাল বাহাদুর (৩০), পিতা- খলিলুর রহমান, সাং- বড় হাবিবপাড়া, টেকনাফ সদর, কক্সবাজার। সাইফুল ইসলাম (৪২), পিতা- কালা মিয়া (হাজী সাইফুল করিমের ভগ্নিপতি), সাং- শীলবনিয়াপাড়া, টেকনাফ সদর, টেকনাফ।

মো. ইউনুছ (৫০), পিতা- মৃত, আবদুল খালেক, সাং- নাইট্যংপাড়া, টেকনাফ পৌরসভা, টেকনাফ। আবদুল হামিদ (৩৫), পিতা- মৃত, সিকদার আলী, সাং-উলুমচামরী, পোস্ট অফিস হ্নীলা, থানা টেকনাফ, কক্সবাজার।

ছৈয়দ আহমদ ছৈয়তু (৫৪), পিতা- খায়রুল বশর, সাং- পশ্চিম সিকদারপাড়া, পোস্ট অফিস হ্নীলা, থানা- টেকনাফ, কক্সবাজার। হেলাল আহমদ (৩৪), পিতা- মৃত, হাজী কবির আহমেদ, সাং-রঙ্গীখালী, পোস্ট অফিস হ্নীলা, থানা- টেকনাফ, কক্সবাজার।

জামাল হোসেন (৫০), ইউপি সদস্য, পিতা- মৃত হায়দার আলী, সাং- উত্তর আলীখালী, হ্নীলা, টেকনাফ। মো. হাসান আবদুল্লাহ (৩৩) সভাপতি, হ্নীলা ইউনিয়ন শ্রমিকলীগ, পিতা- আবুল মঞ্জুর মেম্বার, সাং-জাদিমুরা, পোস্ট অফিস হ্নীলা, থানা টেকনাফ, কক্সবাজার।

মোস্তাক আহমদ প্রকাশ মুছু (৩৫), পিতা- মৃত, জাকির হোসেন, সাং- উত্তর জালিয়াপাড়া, থানা- টেকনাফ, কক্সবাজার।

রামু উপজেলার ইয়াবার পৃষ্ঠপোষক বা গডফাদার শীর্ষে রয়েছে মিঠাছড়ি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়রম্যান ইউনুচ ভূট্টো (৪২), পিতা- মৃত আবু বক্কর, সাং- দক্ষিণ মিঠাছড়ি,রামু। এই ইউনুচ ভূট্টো ও তার ছোট ভাই নুরল আজিম (২৬) সরাসরি ইয়াবা সিন্ডিকেটের সাথে সরাসরি জড়িত। সম্প্রতি নুরুল আজিম ইয়াবাসহ পুলিশের হাতে আটক হন।

এছাড়াও রামু থেকে ইয়াবার পৃষ্ঠপোষক বা গডফাদার হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছে এমএম নুরুচ ছাফ (৫৫), পিতা- মৃত অছিয়র রহমান, সাং-সওদাগরপাড়া, জোয়ারিয়ানালা। তিনি জোয়ারিয়ানালা ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান। উল্লেখ্য রামুর শীর্ষ ইয়াবা কারবারী ছৈয়দের সাথে চেয়ারম্যান এমএম নুরুচ ছাফার দীর্ঘদিনের যোগসূত্র রয়েছে।

ইয়াবা ছৈয়দ প্রকাশ বার্মাইয়া ছৈয়দ (৪৫), পিতা- অজ্ঞাত, সাং- উত্তর মিঠাছড়ি পাহাড়িয়াপাড়া, চা-বাগান, জোয়ারিয়ানালা। রাশেদুল ইসলাম বাবুইন্যা (২৮), পিতা- নুরুল আলম, সাং- দং দীঘির দক্ষিণ পাড়, (রামু মাদকদ্রব্য অফিসের পাশে)।

বাবু প্রকাশ মলই বাবু (২৭), পিতা- নুরুল আলম, সাং- মন্ডলপাড়া। সালেক (২৬), পিতা- সাকের কোম্পানী, সাং-মিয়াজীপাড়া, দক্ষিণ চাকমারকুল তিনি লোহাগড়া থানার এসআই নুরুল ইসলামের জামাতা।

রামুর কচ্ছপিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান নুরুল আমিন কোম্পানী (৫০) । জুলেখা আলম জুমু (২৬), পিতা- জাফর আলম, সাং-পূর্ব জোয়ারিয়ানালা, রামু।

মহেশখালী থেকে ইয়াবার পৃষ্ঠপোষক বা গডফাদাররা হচ্ছেন শরীফ বাদশা চেয়ারম্যান, উপজেলা আওয়ামী লীগের বিগত কমিটির সহ-সভাপতি)। পিতা- মৃত সেকান্দার বাদশা, সাং- বড় ডেইল, বড় মহেশখালী, কক্সবাজার।

মৌলভী জহির উদ্দীন। পিতা- মৃত মোজাহের মিয়া, সাং- ২নং ওয়ার্ড় পুটিবিলা, মহেশখালী পৌরসভা, মহেশখালী, কক্সবাজার।

মো. সালাহ উদ্দীন, (পৌরসভা বিএনপির বিগত কমিটির সহ-সভাপতি)। পিতা- মৌলভী জাকারিয়া, সাং- ৮নং ওয়ার্ড, শিকদার পাড়া, মহেশখালী পৌরসভা, কক্সবাজার।

পূর্ণ চন্দ্র দে (সাবেক পৌরসভা আওয়ামী লীগ আহ্বায়ক ছিলেন)। পিতা- মৃত উমা চরণ দে, সাং-দক্ষিণ হিন্দু পাড়া, ৬নং ওয়ার্ড় পৌরসভা, মহেশখালী, কক্সবাজার।

চকরিয়া উপজেলায় ইয়াবার পৃষ্ঠপোষক বা গডফাদার হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছে চকরিয়া পৌর যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক আজিজুল হক সোহেল। পিতা- হাচু মিয়া, সাং-সবুজবাগ, আবাসিক এলাকা, পৌরসভা, ২নং ওয়ার্ড, চকরিয়া, কক্সবাজার ।

এছাড়াও তালিকায় রয়েছেন পৌরসভা ২নং ওয়ার্ডের কমিশনার এবং চকরিয়া পৌরসভা আওয়ামী লীগের সহ-সম্পাদক রেজাউল করিম। পিতা- আব্দুল গণি, সাং- জনাত মার্কেট পাড়া, পৌরসভা, ২নং ওয়ার্ড, চকরিয়া, কক্সবাজার।

র‍্যাব ক্যাম্প কক্সবাজারের কোম্পানি কমান্ডার মেজর রুহুল আমিন জানিয়েছেন, ইয়াবার পৃষ্ঠপোষক বা গডফাদারদের দমন করা গেলে ইয়াবা ব্যবসয়ীরা আর ইয়াবা ব্যবসা করার সাহস পাবে না। দেশ থেকে ইয়াবা নির্মূলে এর পৃষ্ঠপোষক বা গডফাদারদের দমন করে আইনের আওতায় আনা হবে।

কক্সবাজারের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আফরুজুল হক টুটুল জানিয়েছেন, মাদকের বিরুদ্ধে অভিযানে কোনো ধরনের পেশি শক্তিই বাধা হয়ে দাঁড়াতে পারবে না। মাদক ব্যবসায়ী বা ইয়াবার গডফাদার যতোই শক্তিশালী হোক তাদের খুঁজে খুঁজে ধরা হবে।


আপনার মন্তব্য লিখুন...

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ন বেআইনি
Top