Projonmo Kantho logo
About Us | Contuct Us | Privacy Policy
ঢাকা, সোমবার, ১৭ ডিসেম্বর ২০১৮ , সময়- ৯:০৬ পূর্বাহ্ন
Total Visitor: Projonmo Kantho Media Ltd.
শিরোনাম
ড. কামাল হোসেনের গাড়িবহরে হামলার ঘটনায় মামলা সারা দেশে ব্যাপক শ্রদ্ধা-ভালোবাসায় বিজয় দিবস উদযাপন বিএনপি-ঐক্যফ্রন্টকে ভোট না দেয়ার আহ্বান খালেদা জিয়াকে মুক্ত করতে সংগ্রাম চলছে, চলবে : ফখরুল  ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে ভোটারদের সঙ্গে মতবিনিময় করবেন প্রধানমন্ত্রী বিজয় দিবসে একাত্তরের বীর শহীদদের প্রতি প্রেসিডেন্ট ও প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা গণমানুষের শেখ মুজিব, ইতিহাসের মহানায়ক বিজয় দিবসের বীর শ্রেষ্ঠরা বীরত্বের এক অবিস্মরণীয় দিন, মহান বিজয় দিবস আজ নির্বাচনে নিরাপত্তার ছক চুড়ান্ত করেছে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী

ভাঙতে চলেছে জামাত ইসলামির সঙ্গে বিএনপির জোট ?


নিজস্ব প্রতিবেদক, প্রজন্মকণ্ঠ

আপডেট সময়: ৪ আগস্ট ২০১৮ ১২:১৪ এএম:
ভাঙতে চলেছে জামাত ইসলামির সঙ্গে বিএনপির জোট ?

বিশেষ প্রতিবেদন: ভাঙতে চলেছে জামাত ইসলামির সঙ্গে বিএনপির জোট ? বিভিন্ন সূত্রের খবর, উগ্র ইসলামি দলটির সঙ্গে আর থাকতে চাইছেন না খালেদা জিয়ার দলের নিচু তলার নেতা-কর্মীরা৷ ফলে বিএনপি নেতৃত্বাধীন ২০ দলীয় জোটের অন্যতম শক্তি আলাদাই লড়তে পারে আসন্ন জাতীয় নির্বাচনে৷ মনে করা হচ্ছে, সরাসরি ভোটে অংশ না নিয়ে নির্দল হিসেবেই জামাত প্রার্থীদের দেখা মিলবে৷

জানা গিয়েছে, শুক্রবার নেত্রীর কার্যালয়ে দলের নিচু তলার নেতৃত্ব জামাত ইসলামিকে জোট থেকে বাদ দেওয়ার পক্ষে যুক্তি উত্থাপন করেন৷ তাঁদের দাবি, সম্প্রতি সিলেট পুরসভা (সিটি কর্পোরেশন) নির্বাচনে জামাত আলাদা লড়াই করেছে৷ তার পরেও এই পুরসভায় আওয়ামী লীগকে পরাজিত করে জয়ী হয়েছে বিএনপি৷ এর থেকেই বুঝতে পারা যায় জামাতকে ছাড়া নির্বাচনে লড়লে ভালো ফল হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে৷
 
সিলেট সিটি কর্পোরেশনের ভোটে জামাত ইসলামির প্রার্থীর জামানত বাজেয়াপ্ত হয়েছে৷ তবে বরিশাল ও রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনে বিএনপি হেরেছে৷ সিলেটের নির্বাচনকে ভিত্তি করেই ২০ দলীয় জোট থেকে জামায়াতে ইসলামীকে বাদ দিতে বিএনপির হাইকমান্ডকে মত দিয়েছেন দলটির তৃণমূল স্তরের নেতৃত্ব৷ বৈঠকে কেন্দ্রীয় নেতাদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন, ড. মঈন খান, নজরুল ইসলাম খান, গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, আমির খসরু মাহমুদ চৌধুরী সহ অন্যান্যরা৷

গত জাতীয় নির্বাচনেও বিএনপি ও জামাত ইসলামি এক জোটেই ভোটে অংশ নেয়৷ পরে ব্যাপক রিগিংয়ের অভিযোগ তুলে হিংসাত্মক আন্দোলনে অংশ নেয় দুই দলের ছাত্র সংগঠন৷ এর জেরে শতাধিক মানুষের মৃত্যু হয়৷ এই সব ঘটনায় হুকুমের আসামী করে মামলা চলছে খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে৷ তবে তিনি আর্থিক দুর্নীতির মামলায় জেলে বন্দি৷

একনজরে ১০ ট্রাক অস্ত্র মামলা : ২০০৪ সালে বিএনপি ও জামাত ইসলামি জোট সরকারের প্রধানমন্ত্রী ছিলেন খালেদা জিয়া৷ তাঁর আমলেই হয় চাঞ্চল্যকর ১০ ট্রাক অস্ত্র মামলা৷ সেই বছর পয়লা এপ্রিল চট্টগ্রাম বন্দরে ধরা পড়ে দশটি ট্রাক বোঝাই বিভিন্ন আগ্নেয়াস্ত্র ও গোলাবারুদ৷ এই অস্ত্র সম্ভার ভারতের বিচ্ছিন্নতাবাদী সংগঠন ইউনাইটেড লিবারেশন ফ্রন্ট অব আসাম (আলফার)-কে পাঠানো হচ্ছিল বলে গোয়েন্দা রিপোর্টে উঠে এসেছে৷

এই মামলায় আলোচিত দুই নামের একটি তৎকালীন কৃষিমন্ত্রী তথা জামাত ইসলামির সর্বচ্চো নেতা মতিউর রহমান নিজামী৷ পরে নিজামীকে ১৯৭১ সালের মুক্তিযুদ্ধে গণহত্যায় মদতকারী হিসেবে ফাঁসি হয়৷ অপর দোষী ব্যক্তি তৎকালীন স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী লুৎফুজ্জামান বাবর এখনও বন্দি৷ গত কয়েক বছরে যুদ্ধ অপরাধ সংক্রান্ত মামলায় একাধিক জামাত নেতার মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করা হয়েছে৷ জামাতের প্রথম সারির প্রায় সব নেতাকেই রাষ্ট্র বিরোধী ষড়যন্ত্রে বন্দি করা হয়েছে৷ দলটির নির্বাচনী নিবন্ধন বাতিল করা হতে পারে৷

দলনেত্রী ছাড়াই বিএনপির শীর্ষ নেতৃত্ব শুক্রবার জামাতের সঙ্গে জোট প্রসঙ্গে গুরুত্বপূর্ণ বৈঠক করেছেন৷ এই বৈঠকে ছিল রাজশাহী ও রংপুর এলাকার নেতা কর্মীরা৷ তাদের তরফে ২০ দলীয় জোট থেকে জামাতকে বাদ দেওয়ার দাবি তোলা হয়৷ বিএনপির রাজশাহী বিভাগের নেতারা জানিয়েছেন, সিলেট সিটি করপোরেশন নির্বাচনে মেয়র পদে জামাতের প্রার্থী থাকার পরও বিএনপির মেয়র প্রার্থী জয়লাভ করেছেন। এতে প্রমাণিত হয় ভোটের রাজনীতিতে জামাতকে ছাড়াই বিএনপি জিততে পারে৷ 

আগামী নির্বাচনের আগে খালেদা জিয়ার ডাক দেওয়া ‘জাতীয় ঐক্য’ করতে জোট থেকে জামাতকে বাদ দেওয়া দরকার। এই যুক্তিকে স্বাগত জানিয়েছেন রংপুর বিভাগের নেতৃত্ব৷ তাদের মত, জাতীয় ঐক্যের প্রয়োজনে এখন জোট থেকে জামাতকে বাদ দিতে হবে।


আপনার মন্তব্য লিখুন...

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ন বেআইনি
Top