Projonmo Kantho logo
About Us | Contuct Us | Privacy Policy
ঢাকা, শনিবার, ১৭ নভেম্বর ২০১৮ , সময়- ৮:০৭ পূর্বাহ্ন
Total Visitor: Projonmo Kantho Media Ltd.
শিরোনাম
আ’লীগ নেতা রেজনু ও ছাত্রদল নেতা জিলানির ফোনালাপ ফাঁস প্রশাসনিক কর্মকর্তাদের ইসিকে সহযোগিতার নির্দেশনা | প্রজন্মকণ্ঠ আওয়ামী লীগের দুপক্ষের সংঘর্ষ ও গোলাগুলিতে চারজন নিহত | প্রজন্মকণ্ঠ ইয়াঙ্গুন উপকূলে একটি নৌকা থেকে শতাধিক রোহিঙ্গাকে গ্রেফতার  জীবনীভিত্তিক প্রামাণ্যচিত্র ‘হাসিনা : এ ডটার’স টেল’ দেখতে উপচেপড়া ভিড় নির্বাচন পেছানোর দাবি ও আগুন সন্ত্রাস একই সূত্রে গাঁথা :  ড. হাছান মাহমুদ  দেশকে ক্ষুধা ও দারিদ্র্যমুক্ত করতে সবাইকে একসঙ্গে কাজ করার আহ্বান : প্রধানমন্ত্রী রাজনৈতিক দলগুলির সমান সুযোগ নিয়ে পাল্টাপাল্টি অভিমত | প্রজন্মকণ্ঠ বিভিন্ন পত্রিকার সম্পাদকদের সঙ্গে পরামর্শ ও সহযোগিতা চেয়েছে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট বিএনপি নেত্রী নিপুণ রায় ও রুমাকে পাঁচ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত

ফের ভারত-বাংলাদেশ সীমান্তে সক্রিয় হচ্ছে জঙ্গিরা, উদ্বিগ্ন বাংলাদেশ 


প্রজন্মকণ্ঠ অনলাইন রিপোর্ট

আপডেট সময়: ৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮ ১১:২৬ পিএম:
ফের ভারত-বাংলাদেশ সীমান্তে সক্রিয় হচ্ছে জঙ্গিরা, উদ্বিগ্ন বাংলাদেশ 

ফের ভারত-বাংলাদেশ সীমান্তে সক্রিয় হচ্ছে জঙ্গিরা৷ বিশেষ করে রাজশাহী ও চাঁপাইনবাবগঞ্জের বিস্তীর্ণ অঞ্চলে মাথাচাড়া দিয়ে উঠেছে নিষিদ্ধ জেহাদি সংগঠন জামাত উল মুজাহিদিন বাংলাদেশ বা জেএমবি।

গোয়েন্দা সূত্রে খবর, পদ্মার নদীর চরে সাংগঠনিক তৎপরতা বাড়িয়ে চলেছে জেএমবি৷ সেখানেই গোপনে প্রশিক্ষণ দেওয়া হচ্ছে নয়া সদস্যদের৷ দুর্গম এলাকা হওয়ায় সেখানে গজিয়ে উঠেছে একাধিক জঙ্গি শিবির৷ নিরাপত্তরক্ষীদের তীব্র অভিযানের মুখে মাঝখানে নিষ্ক্রিয় থাকলেও ফের সক্রিয় হয়েছে জেহাদিরা৷ উল্লেখ্য, গোদাগাড়ি ও চাঁপাইনবাবগঞ্জের দুটি চরে ৩০ আগস্ট অভিযান চালায় র‌্যাব৷ গ্রেপ্তার করা হয় জেএমবির শীর্ষ ক্যাডার আমিনুল ইসলাম-সহ পাঁচ জঙ্গিকে৷ জঙ্গিদের কাছে আগ্নেয়াস্ত্র, গান পাউডার, গুলি ও জেহাদি বইপত্র পাওয়া যায়৷ তাদের জেরা করেই এই চাঞ্চল্যকর তথ্য জানতে পেরেছেন গোয়েন্দারা৷

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক শীর্ষ গোয়েন্দা আধিকারিক জানিয়েছেন, রাজশাহী ও চাঁপাইনবাবগঞ্জ সীমান্তের বিভিন্ন দুর্গম এলাকায় ঘাঁটি বানিয়েছে জঙ্গিরা৷ সেখান থেকেই রমরমিয়ে চলছে জাল নোট, অস্ত্র, সোনা ও মাদক পাচারের ব্যবসা। এছাড়াও মাদ্রাসার ছাত্র, ইমাম ও ধর্মভীরু ব্যক্তিদের মগজধোলাই করে নাশকতার কাজে ব্যবহার করছে জঙ্গিরা। 

প্রসঙ্গত, ক্ষমতায় এসেই সন্ত্রাসবাদীদের বিরুদ্ধে কড়া অভিযানের নির্দেশ দেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা৷ ঢাকা. সিলেট, চট্টগ্রাম-সহ একাধিক জেলায় একের পর এক অভিযান চালায় নিতাপত্তারক্ষীরা৷ নিকেশ হয় বহু জঙ্গি৷ তবে ফের তারা সক্রিয় হয়ে উঠেছে৷     


আপনার মন্তব্য লিখুন...

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ন বেআইনি
Top