Projonmo Kantho logo
About Us | Contuct Us | Privacy Policy
ঢাকা, সোমবার, ১৯ নভেম্বর ২০১৮ , সময়- ৫:২৩ অপরাহ্ন
Total Visitor: Projonmo Kantho Media Ltd.
শিরোনাম
শরিকদের জন্য ৭০টি আসন ছাড়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নির্বাচনে দুর্নীতিবাজদের নির্বাচিত না করতে দেশবাসীর প্রতি আহ্বান : দুদক চেয়ারম্যান সাজাপ্রাপ্ত খালেদার যথাযথ চিকিৎসার ব্যবস্থা নিতে হাইকোর্টের নির্দেশ  খাশোগি হত্যা : লাশ টুকরো করার ছবি ফাঁস ! ‘মাদার অব হিউম্যানিটি’ পদকের খসড়া মন্ত্রিসভায় অনুমোদন আয়কর মেলার শেষ দিন আজ দুর্নীতিসহ ১১ সূচকে রেড জোনে বাংলাদেশ : এমসিসি  চিকিৎসা বিষয়ে খালেদা জিয়ার রিটের আদেশ আজ  নাজমুল হুদাকে ৪৫ দিনের মধ্যে আদালতে আত্মসমর্পণের নির্দেশ  নির্বাচনকালীন সম্ভাব্য নাশকতা মোকাবিলায় সর্বাত্মক প্রস্তুতি নিচ্ছে সরকার 

টিউশনির টাকায় বঙ্গবন্ধু'র নামে জমি ক্রয় করেছিলাম 


প্রজন্মকণ্ঠ অনলাইন রিপোর্ট

আপডেট সময়: ৭ সেপ্টেম্বর ২০১৮ ১১:৩৩ পিএম:
টিউশনির টাকায় বঙ্গবন্ধু'র নামে জমি ক্রয় করেছিলাম 

ফেসবুক স্ট্যাটাস : বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তিচ্ছুদের জন্য আমি ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতিষ্ঠা করেছিলাম "চ্যালেঞ্জ কোচিং সেন্টার"। বিশ্ববিদ্যালয়ের মেধাবী ছাত্ররা আমার কোচিং সেন্টারে শিক্ষক ছিলেন । কোচিং সেন্টারটি কুষ্টিয়া ও ঝিনাইদহে খুব জনপ্রিয় ছিল । এই কোচিং সেন্টারের ছাত্র ছাত্রী ছিলেন তাদের অনেকেই এখন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক সহ বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ পদে অধিষ্ঠিত আছেন । 

সেই কোচিং সেন্টারের আয় থেকে আমি ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় সন্নিকটে শেখ পাড়া বাজারে একখণ্ড জমি ক্রয় করেছিলাম । এ ক্ষেত্রে সবচেয়ে বেশি ভূমিকা পালন করেছিলেন ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ- রেজিস্টার অকাল প্রয়াত হারুন । আমার স্বপ্ন ছিল সেখানে 'বঙ্গবন্ধু পল্লী' প্রতিষ্ঠা করার । 

আমি জমিটি জননেত্রী শেখ হাসিনার নামে রেজিস্ট্রি করার জন্য নেত্রীর অনুমতি নিতে গেলে নেত্রী সেদিন অবাক হয়ে জানতে চেয়েছিলেন জমি ক্রয়ের টাকা কোথায় পেলাম । আমি তখন কোচিং সেন্টারের আয় থেকে জমানো টাকার কথা বললাম । ধানমন্ডি ৩২ নাম্বারে বঙ্গবন্ধু ভবনে তখন মরহুম জিল্লুর রহমান (সাবেক রাষ্ট্রপতি), মরহুম আব্দুর রাজ্জাক (সাবেক মন্ত্রী), ডাঃ মোস্তফা জালাল মহিউদ্দিন ও বাংলাদেশ ছাত্রলীগের তৎকালীণ সভাপতি এ কে এম এনামুল হক শামীম উপস্থিত ছিলেন । বঙ্গবন্ধু কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনা সেদিন হাসতে হাসতে হাসতে বলেছিলেন আমার কাছেতো সবাই চাইতে আসে, তুমি আমাকে দিতে এসেছো ?

নেত্রী সেদিন আরো বলেছিলেন আমিইবা কয়দিন বাঁচবো । জমিটি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান  মেমোরিয়াল ট্রাস্টের নামে দলিল করতে বলেছিলেন । জমিটি বঙ্গবন্ধু ট্রাস্টের নামেই দলিল করা হয়েছিল । অনেক দিন পর পুরনো ফাইলের মধ্যে সেই দলিলটি খুঁজে পেলাম । ছাত্র রাজনীতি নিয়ে অনেক নেতিবাচক আলোচনা আছে । কিন্তু অনেক ইতিবাচক দিকও আছে । ছাত্রলীগ কর্মীরা টিউশনির টাকা জমিয়ে বঙ্গবন্ধুর নামে জমি ক্রয় একটি অনন্য দৃষ্টান্ত এটা অস্বীকার করার উপায় আছে কি ?

ফেসবুক স্ট্যাটাসশাহজাহান শাজু


আপনার মন্তব্য লিখুন...

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ন বেআইনি
Top