Projonmo Kantho logo
About Us | Contuct Us | Privacy Policy
ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৩ ডিসেম্বর ২০১৮ , সময়- ২:৪৩ অপরাহ্ন
Total Visitor: Projonmo Kantho Media Ltd.
শিরোনাম
ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলায় গণসংযোগে মির্জা ফখরুল  বিতর্কিত সাবেক রাষ্ট্রপতি এরশাদ ও তাঁর রাজনীতি  প্রমাণিত হলো বিএনপি সন্ত্রাসী দল : কাদের  বিবাহবার্ষিকীতে দোয়া চাইলেন ক্রিকেট সুপারস্টার সাকিব টুঙ্গিপাড়া থেকে নির্বাচনী প্রচারণা শুরু করলেন সভানেত্রী শেখ হাসিনা  খালেদা জিয়ার প্রার্থিতা নিয়ে রিটের আদেশ আগামীকাল  মনোনয়নপত্র ফিরে পাচ্ছেন স্বতন্ত্র প্রার্থী হিরো আলম নির্বাচনী প্রচার শুরু করবেন শেখ হাসিনা, ১২ ডিসেম্বর সিঙ্গাপুর যাচ্ছেন সাবেক রাষ্ট্রপতি হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ সহস্রাব্দ উন্নয়ন লক্ষ্য ২০১৫ থেকে টেকসই উন্নয়ন অভীষ্ট ২০৩০

কোন ফল থেকে কোন বিষ ঢুকছে আপনার শরীরে ?


প্রজন্মকণ্ঠ অনলাইন রিপোর্ট

আপডেট সময়: ১৪ নভেম্বর ২০১৮ ৯:৫১ পিএম:
কোন ফল থেকে কোন বিষ ঢুকছে আপনার শরীরে ?

সুন্দর চকচকে পাকা ফলের আড়ালে লুকিয়ে রয়েছে মারণ বিষ৷ শরীরে ঢুকছে রাসায়নিক৷ জেনে অথবা না জেনে আমরা তারই শিকার৷ তাই জেনে নেওয়া জরুরি- কোন ফলের আড়ালে রয়েছে কী!

মোম-ফল : “অ্যান অ্যাপেল আ ডে/কিপস দ্য ডক্টর অ্যাওয়ে”৷ এমনটাই জানতেন সকলে৷ রোজ আপেল খাওয়ার এই বিধান আপাতত শিকেয়৷ চিকিৎসকরা বলছেন বাজারের চকচকে আপেল খেলে উপকার তো দূর, উল্টে ছুটে আসতে হবে চিকিৎসকের কাছেই৷ বাজারের চকচকে, স্টিকার দেওয়া আপেলের গা রেশমের মতো মোলায়েম৷ ক্রেতাদের টানতে আপেলের গায়ে মোম দিচ্ছেন ফল বিক্রেতারা৷ গায়ে মোম জাতীয় প্রলেপ দিয়ে রাখলে আপেল সহজে নষ্ট হয় না৷ অনেকদিন পর্যন্ত সতেজ থাকে৷ দেখতেও তা সাধারণ আপেলের তুলনায় অনেক বেশি ঝাঁ চকচকে৷ শুধু আপেল নয়, বাজারের পাতি লেবুতেও মোমের হদিশ পেয়েছেন বিশেষজ্ঞরা৷ সাধারণত সস্তার পেট্রোলিয়াম জাতীয় মোম ব্যবহার করেন চাষিরা৷ দেখা গিয়েছে আপেল-লেবুর গায়ে এমন মোম ব্যবহার করা হয় যা সাধারণত সস্তার লিপস্টিক, গায়ে মাখার ক্রিমে থাকে৷ রোজ লিপস্টিক খাওয়ার পরিণাম সহজেই অনুমেয়৷

লাল ইঞ্জেকশন : বাজারে তরমুজ কিনতে গিয়ে গরু খোঁজা খোঁজেন ক্রেতা৷ নিটোল গোল, রসালো লাল তরমুজই পছন্দ৷ লম্বাটে তরমুজ ব্যাগে ভরতে চান না কেউই৷ তরমুজ কেনার আগে অনেকেই জিজ্ঞেস করেন, “দাদা ভেতরটা লাল হবে তো?” ছুরি দিয়ে এক ফালি কেটে দেখালেই মনখুশ৷ তরমুজের গায়ে হাত বুলিয়ে ক্রেতা দেখে নেন মাখনের মতো মসৃণ কি না৷ আর এখানেই থাকে কারসাজি৷ তরমুজকে গাঢ় মসৃণ সবুজ রঙ দিতে কপার সালফেটে চুবিয়ে রাখা হয়৷ প্রায় একদিন চুবিয়ে রাখলেই এর গা মসৃণ হয়ে ওঠে৷ এর পর ভেতরের পাল্পে গাঢ় লাল রং আনতে এরিথ্রোসাইন ইনজেক্ট করা হয়৷ ব্যস, এর পর তরমুজ কাটলেই টকটকে লাল- তা সে খেতে যতই পানসে হোক না কেন৷ আপনিও খুশি, কিন্তু শরীরে ঢুকছে বিষাক্ত রাসায়নিক৷

কারবাইড-ফল : বাজারে যে আম, পেঁপে, কলা, বিক্রি হয় তার বেশিরভাগই বিষাক্ত ক্যালসিয়াম কারবাইডে পাকানো৷ আম, কলা, পেঁপে সবুজ থাকতেই গাছ থেকে পেড়ে ফেলেন চাষি৷ কাঁচা ফলের ঠাঁই হয় হাওয়া নিরোধক বদ্ধ ঘরে৷ এই ঘরে এথিলিন গ্যাস থাকে৷ সেই গ্যাসেই চটজলদি পাকে ফলগুলি৷ শরীরে যার ফল মারাত্মক হতে পারে৷

খেলে কী ক্ষতি?

• ফল পাকানোর ক্যালসিয়াম কারবাইড নিয়মিতভাবে শরীরে প্রবেশ করলে কিডনির দফারফা৷ ক্যালসিয়াম কারবাইডে আর্সেনিকের নমুনা মিলেছে৷ এই রাসায়নিক বিভিন্ন উন্নত দেশে নিষিদ্ধ হয়ে গিয়েছে৷ কারবাইডে পাকানো ফল খেলে হতে পারে ইনসমনিয়া, আলসার জাতীয় অসুখ৷ হজম প্রক্রিয়াও বিঘ্নিত হয় কারবাইডে৷
• আনারসের ভেতরটা হলুদ করতে ‘মেটানীল ইয়েলো’ নামক রং ব্যবহার করা হয়৷ কৃত্রিম এই রং যকৃৎ-এর ক্যানসারের প্রধান কারণ৷
• আপেলের বাইরে যে মোম ব্যবহৃত হয়, তাও শরীরের পক্ষে মারাত্মক৷ লেড নাইট্রেট জাতীয় এই মোম স্নায়ুতন্ত্রের উপর আঘাত হানে৷
• বিভিন্ন ফল মসৃণ করতে অনেক সময় কপার সালফেটে চুবিয়ে রাখা হয়৷ কপার সালফেট শরীরে প্রবেশ করলে অ্যানিমিয়া অবশ্যম্ভাবী৷ হতে পারে হার্টের একাধিক অসুখ৷

সুস্থ থাকার সাত পথ

• রাস্তার ফল কিনেই মুখে দেবেন না৷ বাড়িতে আনুন৷ এক দু’দিন পরে খান৷
• ফল খাওয়ার আগে জলে ডুবিয়ে রাখুন৷ রানিং ওয়াটারে ধুয়ে নিন৷
• উষ্ণ গরম জলে ফল ডুবিয়ে রাখলে ভাল৷ সাধারণত ৮০ ডিগ্রি বা তার বেশি তাপে ফরমালিন বা অন্য রাসায়নিক ধুয়ে যায়৷
• ফলের খোসা ছাড়িয়ে খান৷ কারবাইড জাতীয় রাসায়নিক খোসায় বেশি থাকে৷ আর হ্যাঁ, খেয়াল রাখবেন, ঘরের খুদে যেন খোসা মুখে না দেয়!
• তিনভাগ জলে একভাগ ভিনিগার মিশিয়ে স্প্রে তৈরি করুন৷ ফল খাওয়ার আগে এই হোমমেড ফ্রুট ওয়াশ স্প্রে করে নিন৷ তার পরে টিস্যু পেপার দিয়ে ফলের বাইরেটা মুছে নিতে ভুলবেন না৷
• আপেল, লেবুর বাইরের কৃত্রিম মোম ছাড়াতে নরম ব্রাশ দিয়ে জলের তলায় রেখে ঘষে নিন৷ মাইক্রোওয়েভ থাকলে তার মধ্যে আপেল বা লেবু রেখে অল্প তাপমাত্রায় ১০ সেকেন্ড রাখলেই মোম ছেড়ে যাবে৷

এগুলো মেনে চললেই সুস্বাস্থ্য আপনার হাতের মুঠোয়! ফলটা তো ছিলই!


আপনার মন্তব্য লিখুন...

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ন বেআইনি
Top